এই রক্তাক্ত 'ঐতিহ্যে' আর কত দিন!
গোটা দেশে ভোট হল। কী ভাবে হল, আমরা সবাই দেখলাম। সাকুল্যে হয়ত হরিয়ানার একটা বুথে ছাপ্পা দেওয়ার অভিযোগ মিলবে।
Voters

লাইনে দাড়িয়ে ভোটদাতারা। ছবি রয়টার্স।

অতি দীর্ঘ এক নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে পৌঁছল। ভোট গ্রহণ শেষ, শুধু গণনা বাকি আর। তবে আসন গণনার আগে আভাসে-আন্দাজে আর এক গণনা সম্পন্ন হল। ভোট গ্রহণ শেষ হওয়া মাত্রই বুথ ফেরত সমীক্ষার ফল প্রকাশিত হল। আগামী পাঁচ বছরের জন্য দেশের রাজদণ্ড কার বা কাদের হাতে থাকতে পারে, সে সম্পর্কে একটা আগাম ধারণা পাওয়া গেল। যে ধারণা পাওয়া গেল, তাকে ধ্রুব সত্য বলে ধরে নেওয়া সম্ভব নয়। বুথ ফেরত সমীক্ষার ফলাফল অনেক বারই ভোটের ফলাফলের সঙ্গে মেলেনি। আবার অনেক বারই দারুণ ভাবে মিলেও গিয়েছে। তাই বিশ্বাস-অবিশ্বাসের দোলাচল আপাতত চলবে। ক্ষমতা ধরে রাখতে পারা যাবে কি না, ক্ষমতায় আসা সম্ভব হবে কি না, এ সব নিয়ে আশা-আশঙ্কার টানাপড়েন আপাতত চলবে বিভিন্ন শিবিরে। এ টানাপড়েন খুব একটা অস্বাস্থ্যকর নয়। কিন্তু গোটা ভোট মরসুম জুড়ে নাগরিকদের গণতান্ত্রিক অধিকার নিয়ে যে টানাপড়েন চলল পশ্চিমবঙ্গে, তা একেবারেই স্বাস্থ্যকর নয়।

গোটা দেশে ভোট হল। কী ভাবে হল, আমরা সবাই দেখলাম। সাকুল্যে হয়ত হরিয়ানার একটা বুথে ছাপ্পা দেওয়ার অভিযোগ মিলবে। অথবা হয়ত উত্তরপ্রদেশের অমেঠিতে বেশ কিছু বুথ দখল নেওয়ার অভিযোগ তোলা হবে রাহুল গাঁধীর বিরুদ্ধে, যে অভিযোগের বিন্দুমাত্র বাস্তব ভিত্তি সম্পর্কে অভিযোগকারিণী স্মৃতি ইরানি নিজেই সন্দিহান হবেন মনে মনে। আর প্রায় কোথাও কোনও গোলমাল নেই। গোলমাল শুধু ত্রিপুরায় আর পশ্চিমবঙ্গে। ত্রিপুরায় এমন ভাবে ভোট হল যে, ১৬৮টা বুথে নতুন করে ভোট নিতে হল। আর বাংলায় এত 'ভাল' পরিবেশ যে, প্রায় প্রত্যেকটি দফার ভোটে হিংসাত্মক ছবি উঠে এল। নির্বাচন কমিশনের এত সতর্কতা, এত নজরদারি, এত কেন্দ্রীয় বাহিনী সত্ত্বেও শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত বাংলায় নির্বাচন প্রক্রিয়া রক্তাক্তই থাকল।

এই পরিস্থিতি আর কত দিন চলবে? আমাদেরই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।  গোটা ভারত শান্তিতে ভোট সম্পন্ন করতে পারে আর আমরা পারি না?  এ লজ্জা রাখব কোথায়! এ বার কিন্তু এসপার ওসপারের সময় এসেছে। গণতন্ত্রের পথে হাঁটার প্রশ্নে কি আমরা ভারতের মূল স্রোতটায় সামিল হতে পারব? নাকি নিজেদের 'রক্তাক্ত ঐতিহ্যে' অটল থাকব? সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এসেছে।

সম্পাদক অঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা আপনার ইনবক্সে পেতে চান? সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

আরও পড়ুন: মসনদে মোদীই! ফের ক্ষমতায় আসছে এনডিএ, ইঙ্গিত অধিকাংশ বুথ ফেরত সমীক্ষায়

আরও পড়ুন: রাজ্যে কমছে ঘাসফুল, দাপট পদ্মের! ইঙ্গিত বুথফেরত সমীক্ষায়

আরও পড়ুন:  বুথ দখল, ছাপ্পা ভোট, ভোটারদের বাধা দেওয়ার অভিযোগ শেষ দফার ভোটেও

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত