Advertisement
৩১ জানুয়ারি ২০২৩

সাব-ইন্সপেক্টরকে গুলির ঘটনায় ধৃতদের পুলিশ হেফাজত

গিরিশ পার্কে সাব-ইন্সপেক্টর জগন্নাথ মণ্ডলকে গুলি করার ঘটনায় ধৃত চার জনকে সোমবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলা হয়। তাদের আগামী ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। রবিবার বাবুঘাটে হানা দিয়ে ইফতিকার আলম, শিবকুমার রাউত, মনোজ আলি এবং কিশোর পাসোয়ান নামে ওই চার জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ইফতিকারের কাছ থেকে একটি পিস্তল ও কার্তুজও উদ্ধার করা হয়।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০১৫ ১৮:০০
Share: Save:

গিরিশ পার্কে সাব-ইন্সপেক্টর জগন্নাথ মণ্ডলকে গুলি করার ঘটনায় ধৃত চার জনকে সোমবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলা হয়। তাদের আগামী ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। রবিবার বাবুঘাটে হানা দিয়ে ইফতিকার আলম, শিবকুমার রাউত, মনোজ আলি এবং কিশোর পাসোয়ান নামে ওই চার জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ইফতিকারের কাছ থেকে একটি পিস্তল ও কার্তুজও উদ্ধার করা হয়। ঘটনার দিন রাতেই অশোক শাহ ওরফে মন্টু এবং দীপক সিংহ ওরফে পাপাই নামে দুই তৃণমূল কর্মীকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। এই ঘটনায় আর কেউ জড়িত আছে কি না তা খতিয়ে দেখতে ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

গত ১৮ এপ্রিল কলকাতা পুরসভার ভোট চলাকালীন গিরিশ পার্কের রাজেন্দ্র মল্লিক স্ট্রিটে কংগ্রেসের পার্টি অফিসে হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে এক দল দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। পর পর তিনটে বোমা ফাটায় তারা। সেই সময় দুষ্কৃতীদের ধরতে গিরিশ পার্ক থানার এসআই জগন্নাথ মণ্ডলের নেতৃত্বে পুলিশকর্মীরা এগিয়ে যেতেই তাঁদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন জগন্নাথবাবু। তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রবিবার তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তড়িঘড়ি অস্ত্রোপচার করা হয়। এ দিন হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে, অস্ত্রোপচারের পর জগন্নাথবাবুর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। তাঁকে একটি বিশেষজ্ঞ চিকিত্সক দলের পর্যবেক্ষণে আইসিএউ-তে রাখা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.