Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

WB Election: ‘কয়লা’ অভিযোগের জবাব অভিষেকের, বিজেপি-র বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলার হুঁশিয়ারি তৃণমূলের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৫ এপ্রিল ২০২১ ১৮:৩৭
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Advertisement

কয়লা পাচার সংক্রান্ত ভাইরাল অডিও টেপ প্রসঙ্গে রবিবারই যুব তৃণমূল সভাপতি তথা ডায়মন্ডহারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সরাসরি নাম করে তোপ দেগেছিল বিজেপি। দলের নেতা শুভেন্দু অধিকারী, দীনেশ ত্রিবেদী এবং অমিত মালব্য ওই প্রসঙ্গে সাংবাদিক বৈঠক করেন। সোমবার জোড়া টুইট করে গেরুয়াশিবিরকে জবাব দিলেন অভিষেক। তিনি ওই টুইটে কয়লা সংক্রান্ত বিষয়ে নজরদারির দায়িত্ব যে কেন্দ্রের সে কথা মনে করিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি বিজেপি-কে আক্রমণও করেছেন। অন্য দিকে, অভিষেকের বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগের জবাবে বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তৃণমূলের বিদায়ী বিধায়ক তথা দমদম আসনের প্রার্থী ব্রাত্য বসু।

প্রথম টুইটে অভিষেক বলেন, ‘কয়লা ও সেই সংক্রান্ত যাবতীয় সম্পদ কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে, তার পাহারার দায়িত্বও কেন্দ্রীয় সরকারের হাতেই। বিজেপি নেতারা যদি মনে করেন বেআইনি পাচার থেকে টাকা পাওয়া গিয়েছে, তা হলে যাদের ওপর জাতীয় সম্পত্তি পাহারার দায়িত্ব রয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে কেন্দ্রকে কে বাধা দিয়েছে’। পরে আরও একটি টুইট করে তিনি বলেন, ‘এটা হাস্যকর যে, কয়লা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অফিসাররা তাদের ঊর্ধ্বতনদের (পড়ুন মোদী-শাহ) কথা না শুনে তৃণমূল নেতাদের কথা শুনছেন। কাদের বোকা বানাচ্ছে বিজেপি’।

অভিষেকের এমন মন্তব্যের পর রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা ভোটের সময় পাল্টা চাল দিয়ে কয়লা পাচার কাণ্ডে বিজেপি-কেই অভিযুক্ত করতে চেয়েছে তৃণমূল। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেন দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দিয়েছেন, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, কয়লা পাচার তদন্তে ইতিমধ্যে অভিষেক পত্নী রুজিরা নরুলা, শ্যালিকা মেনকা গম্ভীর-সহ তাঁর স্বামী ও শ্বশুরকে জেরা করেছে সিবিআই। ভোটের আগে সিবিআই তদন্তের গতি বাড়িয়ে অভিষেকের বাসভবন শান্তিনিকেতন পৌঁছলেও এত দিন মৌনই ছিলেন তিনি। কিন্তু রবিবার প্রথমে শুভেন্দু সাংবাদিক সম্মেলন করে ও পরে বিজেপি-র পশ্চিমবঙ্গের সহ পর্যবক্ষেক অমিত মালব্য টুইট করে কয়লা কাণ্ডে অভিষেকের ৯০০ কোটি টাকা নেওয়ার অভিযোগ জানালে, পাল্টা জবাব দিলেন অভিষেক। তৃণমূলের এক রাজ্যস্তরের নেতার কথায়, শুভেন্দু দলবদলের পর নানা ভাবে অভিষেককে টার্গেট করেছেন। রবিবার সেই অভিযোগের মাত্রা ছাড়িয়েছে। তাই এমন অভিযোগের জবাব যে তাঁকে আর ছেড়ে কথা বলা হবে না, তাও টুইট মারফৎ বুঝিয়ে দিতে চেয়েছেন অভিষেক।

তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু আবার কয়লা পাচার কাণ্ডে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতার অভিযোগ এনে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও কয়লামন্ত্রী পীযূষ গয়ালের ইস্তফা দাবি করেছেন। সঙ্গে বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হবে বলেও জানিয়ে দেন।

আরও পড়ুন

Advertisement