×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৫ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

Bengal polls: প্রার্থী নিয়ে অশান্তি, অনশন, ট্রেন অবরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদন
২১ মার্চ ২০২১ ০৮:২৪
প্রার্থী বদলের দাবিতে পাঁচবেড়িয়া স্টেশনে রেল অবরোধ (বাঁ দিকে), চলছে অনশন (ডান দিকে)। শনিবার। নিজস্ব চিত্র

প্রার্থী বদলের দাবিতে পাঁচবেড়িয়া স্টেশনে রেল অবরোধ (বাঁ দিকে), চলছে অনশন (ডান দিকে)। শনিবার। নিজস্ব চিত্র

কোথাও মারপিট, কোথাও অনশন, কোথাও টায়ার জ্বালানো, কোথাও আবার রেল রোকো! প্রার্থী ঘোষণার পর জেলাজুড়ে বিজেপির অন্দরে ক্ষোভ থামার লক্ষণ দেখা যায়নি শনিবারও।

এ দিন সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ কিছু ক্ষণের জন্য রানাঘাট-গেদে শাখার পাঁচবেড়িয়ায় রেল অবরোধ করেন ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীরা। ফলে আপ গেদে লোকাল দাঁড়িয়ে যায়। অবরোধকারীদের দাবি ছিল, রানাঘাট উত্তর-পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী অসীম বিশ্বাসকে তাঁরা মানছে না। তাঁকে বদলে সেখানে অন্য প্রার্থী দিতে হবে। এ দিন সন্ধ্যায় আবার প্রার্থী পরিবর্তনের দাবিতে বিজেপি কর্মীরা চাকদহের বিষ্ণুপুরে বিক্ষোভ দেখান। চাকদহ-বনগাঁ রাজ্য সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানানো হয়।

মদনপুর বাজার এলাকায় কল্যাণী বিধানসভার বিজেপির একাংশ শনিবার অম্বিকা রায়ের বদলে ভূমিপুত্র কাউকে প্রার্থী চেয়ে আমরণ অনশন শুরু করেছেন। গত কয়েক দিন ধরেই কল্যাণীতে বিক্ষোভ চলছে। কোথাও অম্বিকা রায়ের বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়া হচ্ছে। কোথাও টায়ার জ্বালানো হচ্ছে, চেয়ার ভাঙচুর হচ্ছে।

Advertisement

বিক্ষুব্ধ সমর্থকদের দাবি, স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা না-করে অম্বিকা রায়কে প্রার্থী করা হয়েছে। অম্বিকাবাবুর নাম প্রত্যাহার না-করা পর্যন্ত তাঁরা অনশন চালাবেন বলে জানিয়েছেন। হরিণঘাটা বিধানসভার প্রার্থী অসীম সরকারের বিরুদ্ধে শনিবার দলীয় কর্মী-সমর্থকদের একাংশ হরিণঘাটা বিধানসভা কার্যালয় অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখান।

আবার রানাঘাট উত্তর-পশ্চিমের প্রার্থী নিয়ে শনিবারও বিক্ষোভ চলেছে রানাঘাটে দলের দফতরে। বিক্ষোভকারীদের দাবি, সদ্য তৃণমূল থেকে আসা পার্থসারথী চট্টোপাধ্যায়কে তাঁরা প্রার্থী হিসাবে মানবেন না। তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয় দফতরে। দফতরের সামনে পার্থসারথীর বিরুদ্ধে ফেস্টুন টাঙানো হয়, স্লোগান দেওয়া হয়। একটি ফেস্টুনে পার্থসারথীর নাম এবং ছবি কালো কালি দিয়ে কাটা ছিল। জেলার উত্তরে এ দিন কৃষ্ণনগর-দক্ষিণ বিধানসভার বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখালেন দলের কিছু কর্মী। ধুবুলিয়া বাজারে প্রার্থী পরিবর্তনের দাবিতে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। এই আসনে মহাদেব সরকারকে প্রার্থী করেছে দল। তিনি এই বিধানসভারই বাসিন্দা এবং আগে দলের নদিয়া-উত্তর সাংগঠনিক জেলার সভাপতির দায়িত্ব সামলেছেন। এই কেন্দ্রে আগে দু’বার প্রার্থীও হয়েছেন। মহাদেবের দাবি, ‘‘অল্প কয়েক জন বিক্ষোভ করেছেম। তার থেকে অনেক বেশি লোক লোক আমার সমর্থনে ও প্রচারে রাস্তায় নেমেছে। এ সব ইচ্ছাকৃত ভাবে করানো হচ্ছে। দলকে সব জানিয়েছি।’’রানাঘাট থানার কুপার্স ক্যাম্প নোটিফায়েড এলাকার ১০ নম্বর ওয়ার্ডে এ দিন দলীয় প্রার্থীর সমর্থনে দেওয়াল লেখাকে কেন্দ্র করে বিজেপি স্থানীয় দুই নেতার মধ্যে গোলমাল হয়। এদিন সকালে রানাঘাট-দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী মুকুটমনি অধিকারের সমর্থনে দেওয়াল লিখছিলেন বিজেপি কুপার্স শহর তফসিলি মোর্চার সভাপতি বাচ্চু মালী ও তাঁর সঙ্গীরা। খবর পেয়ে সেখানে চলে আসেন বিজেপি কুপার্স শহর মণ্ডলের সাধারণ সম্পাদক বাবাই বিশ্বাস। দু’জনের মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়। তার জেরে বেশ কিছু ক্ষণ এলাকায় উত্তেজনা ছিল।

Advertisement