×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

Bengal Polls: অর্জুনের বাড়ির সামনে বোমাবাজি, ভোটের মুখে ভাটপাড়ায় উত্তেজনা নিয়ে পুলিশকে দুষছে বিজেপি

নিজস্ব সংবাদদাতা
ভাটপাড়া ১৮ মার্চ ২০২১ ১১:৫৫
ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।

ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।

ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বাড়ির বাইরে বোমাবাজির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ভাটপাড়ায়। বুধবার রাতে ভাটপাড়া পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে অর্জুনের বাড়ির সামনে ৮ থেকে ১০টি বোমা পড়ে বলে খবর। যদিও এই বোমার আঘাতে কেউ হতাহত হননি বলেই জানা গিয়েছে।

সূত্রের খবর, বুধবার রাতে অর্জুন ফেরার আগেই তাঁর বাড়ির বাইরে বোমাবাজি হয়। তার কিছুক্ষণ পড়ে অর্জুন বাড়িতে ঢোকার পরে ফের একটি বোমা পড়ে বলে খবর। বোমার আওয়াজ শুনে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসেন বিজেপি সাংসদ। যেখানে বোমাবাজি হয়েছে সেই জায়গা খতিয়ে দেখেন তিনি।

অর্জুনের বাড়ির সামনে সবসময় পুলিশ পাহাড়া থাকে। তাছাড়া নিজেও জেড ক্যাটেগরির নিরাপত্তা পান সাংসদ। তারপরেও কীভাবে বোমাবাজির ঘটনা ঘটল সেটা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন ভাটপাড়ার বিজেপি কর্মীরা। এই হামলার পিছনে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাত রয়েছে বলেই অভিযোগ তাঁদের।

Advertisement

সংবাদমাধ্যমের সামনে অর্জুন বলেন, “আমার বাড়ির বাইরে পুলিশ থাকার পরেও কীভাবে বোমা পড়ছে সেটাই আমি পুলিশের কাছে জানতে চেয়েছি। কিন্তু পুলিশ কোনও উত্তর দিতে পারেনি। কোনও দুষ্কৃতীকে এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি। আমার জেড ক্যাটেগরির নিরাপত্তারক্ষীরা যদি পদক্ষেপ নেয় তাহলে পুলিশ সামলাতে পারবে তো।”


অর্জুনের আরও অভিযোগ, বেশ কয়েক দিন ধরেই তাঁর বাড়ির বাইরে দুষ্কৃতীরা অস্ত্র নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তিনি অনেকবার পুলিশের কাছে সেটা জানিয়েছেন। কিন্তু পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। এই বোমাবাজির ঘটনার কথা নির্বাচন কমিশনকে জানানো হবে বলেও জানিয়েছেন অর্জুন। এই প্রসঙ্গে জগদ্দল থানার পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত চলছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

অন্য দিকে, ভাটপাড়া টাউন তৃণমূল সভাপতি দেবজ্যোতি ঘোষ এই ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, “নির্বাচন কমিশনের কাছে আমরা অনুরোধ জানাব, যাতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট হয়। এই বোমাবাজির ঘটনা বিজেপিরই চক্রান্ত। দুষ্কৃতীদের সঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই। যেখানে এই ঘটনা ঘটেছে সেটি জগদ্দল বিধানসভার মধ্যে পড়ে। আমরাও পুলিশকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন করব।”

Advertisement