Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Bengal Polls: বুধে নন্দীগ্রামে ২ প্রার্থী, নির্বাচনী কার্যালয়ের সূচনায় শুভেন্দু, মমতা জমা দেবেন মনোনয়ন

নিজস্ব সংবাদদাতা
নন্দীগ্রাম ১০ মার্চ ২০২১ ০০:২৯
বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
ফাইল চিত্র।

প্রকৃত ‘যুদ্ধ’ শুরু আগে নন্দীগ্রামের মাটিতে প্রথমবারের জন্য দেখা যাবে দুই প্রতিপক্ষকে। বুধবার ‘যুদ্ধক্ষেত্রের’ দুই প্রান্তে হাজির থাকবেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। বিধানসভা ভোটে পূর্ব মেদিনীপুরের ওই কেন্দ্রের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী।

নেটমাধ্যমে শুভেন্দু জানিয়েছেন, বুধবার বেলা ১১টায় নন্দীগ্রামে তাঁর প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন। তমলুক জেলা বিজেপি সভাপতি নবারুণ নায়েক বলেন, ‘‘নতুন বাজারের একটি বাড়িতে যজ্ঞ অনুষ্ঠান করে নির্বাচনী কার্যালয়ের উদ্বোধন হবে।’’

জেলা তৃণমূল সূত্রের খবর, মমতা সে সময় থাকবেন নন্দীগ্রামেই। দুপুর ১টা নাগাদ তিনি যাবেন হলদি নদীর ওপারে। হলদিয়ার মহকুমা শাসকের দফতরে মনোনয়ন পেশ করতে। জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র তাপস মাইতি বলেন, ‘‘জনসংযোগ অভিযানের পরে তৃণমূল নেত্রী বেলা সাড়ে ১২টায় নন্দীগ্রাম থেকে রওনা হবেন। রেয়াপাড়ায় শিব মন্দিরে পুজো দেওয়ার পরে হলদিয়ায় আসবেন। দুপুর ২টোয় তিনি মনোনয়ন পেশ করবেন।’’ অর্থাৎ, বুধবারেই প্রথম নন্দীগ্রাম দেখবে দুই প্রতিপক্ষকে।

Advertisement

নন্দীগ্রামে প্রার্থী হতে চান বলে আগে মমতাই ঘোষণা করেছিলেন। গত শুক্রবার প্রার্থিতালিকা প্রকাশ করে তাতে নিজেই সিলমোহর দেন। এরপর একদা পূর্ব মেদিনীপুরের কৃষিজমি রক্ষা আন্দোলনের কেন্দ্রে শুভেন্দুকে দাঁড় করানোর কথা জানায় বিজেপি। প্রার্থী হওয়ার পর মঙ্গলবার প্রথম নন্দীগ্রামে হাজির হয়েছিলেন মমতা। স্টেট ব্যাঙ্ক লাগোয়া মাঠে কর্মিসভা করেন তিনি।

এর আগেও একাধিকবার নন্দীগ্রামে দেখা গিয়েছে তাঁদের দু’জনকে। তবে সহযোদ্ধা হিসেবে, একই মঞ্চে পাশাপাশি। বুধবার প্রথম বার প্রতিপক্ষ হিসেবে নন্দীগ্রামের মাটিতে তাঁদের দেখা যাবে। আগামী ১ এপ্রিল বিধানসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্যায়ে নন্দীগ্রামে ভোটগ্রহণ হবে। আর আগামী ২ মে সেই ‘মহারণের ফল’ জানতে এখন থেকেই প্রতীক্ষার প্রহর গুণছে নন্দীগ্রাম-সহ গোটা রাজ্য।

আরও পড়ুন

Advertisement