×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement
Powered By
Co-Powered by
Co-Sponsors

Bengal Polls: ভোটারদের ‘জব্দ’ করতে রায়দিঘিতে জলের কলে কীটনাশক, অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের

নিজস্ব সংবাদদাতা
রায়দিঘি ০৮ এপ্রিল ২০২১ ১৩:৫৪
টিউবওয়েলে কীটনাশক মিশিয়ে দেওয়ার অভিযোগ রায়দিঘিতে।

টিউবওয়েলে কীটনাশক মিশিয়ে দেওয়ার অভিযোগ রায়দিঘিতে।
নিজস্ব চিত্র।

ভোট মিটে গিয়েছে। কিন্তু ভোটপরবর্তী হিংসায় ছেদ পড়েনি। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার রায়দিঘি বিধানসভা এলাকার ভোটারদের ‘জব্দ’ করতে টিউবওয়েলে কীটনাশক মিশিয়ে দেওয়া এবং জলের পাইপ ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। রায়দিঘি বিধানসভার মথুরাপুর থানার লালপুরের রানাঘাটা এলাকার এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এই কীটনাশক মিশ্রিত পানীয় জল খেয়ে কয়েক জন স্থানীয় বাসিন্দা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে অভিযোগ। প্রতিবাদে রায়দিঘি-বিষ্ণুপুর রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রানাঘাটা এলাকার সিংহভাগ ভোটারই বাম সমর্থক। তাঁদের অভিযোগ, গত পঞ্চায়েত ভোটের সময় থেকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হুমকির জেরে ওই এলাকার বেশিরভাগ মানুষ ভোট দিতে পারেননি। কিন্তু এ বার কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতিতে শান্তিপূর্ণ ভোট হয়। ভোটের আগে সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়ের হয়ে প্রচার এবং ফেস্টুন, ব্যানার লাগানোয় তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতারা এলাকার বাসিন্দাদের হুমকি দিয়েছিল বলে অভিযোগ। ভোটের পর বুধবার রাতে পানীয় জল সরবরাহকারী পাইপ কেটে ভেঙে দেওয়া এবং বেশ কিছু টিউবওয়েল ভেঙে দেওয়া হয়। পানীয় জলের টিউবওয়েলে কীটনাশক মিশিয়ে দেওয়ারও অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয়রা। স্থানীয় বাসিন্দা ও বাম সমর্থকদের অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা রাতের অন্ধকারে এই কাজ করেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি নজরে আসে স্থানীয়দের। কয়েকটি টিউবওয়েলের পাশ থেকে উদ্ধার হয় কীটনাশকের ফাঁকা বোতল। স্থানীয় সূত্রে খবর, কয়েকজন কীটনাশক মিশ্রিত জল খেয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাঁদের চিকিৎসকের কাছেও নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই ঘটনার জেরে ওই এলাকায় জলকষ্টও তৈরি হয়েছে। ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে মথুরাপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এলাকার বিডিওকে ঘটনার কথা জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

Advertisement

রায়দিঘি বিধানসভার সিপিএম প্রার্থী কান্তি গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন, ‘‘শান্তিপূর্ণ ভোট হওয়ায় হতাশায় ভুগছে তৃণমূল। তাই রানাঘাটা এলাকায় রাতের অন্ধকারে পানীয় জলের পাইপ লাইন ভেঙে দেওয়া এবং টিউবওয়েলে কীটনাশক মিশিয়ে দেওয়ার মতো কাজ করছে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা। আমি চাই প্রশাসন দ্রুত ব্যবস্থা নিক।’’ তবে নিজেদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে এই কাজের দায় সিপিএম ও বিজেপি-র উপর চাপিয়েছে তৃণমূল। রায়দিঘির তৃণমূল প্রার্থী অলক জলদাতা বলেছেন, ‘‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে সিপিএম ও বিজেপি এই কাজ করেছে। আর আমাদের উপর মিথ্যে অভিযোগ করছে। এই এলাকায় নির্বাচিত প্রধান আমাদের দলের। এ বারের ভোটেও এই এলাকায় এগিয়ে থাকবে তৃণমূল। তাই সিপিএম এবং বিজেপি মিথ্যে অপপ্রচার করে প্রচারে আসার চেষ্টা করছে।’’

Advertisement