×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ মে ২০২১ ই-পেপার

Bengal Election: ‘নগরের নটী’ পায়েল, তনুশ্রীরা কেন প্রার্থী, বিজেপি-র ‘প্রভু’দের প্রকাশ্য তোপ তথাগতর

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৪ মে ২০২১ ১৩:৪৮
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

বেহিসেবি মন্তব্যে অনেক কাল ধরেই তাঁর বেশ ‘নামডাক’। তবে এত দিন তথাগত রায়ের সেই সব মন্তব্য ধাবিত হত বিজেপি-বিরোধীদের প্রতি। কিন্তু নীলবাড়ির লড়াই শেষ হতে সেই ‘তথাগত-বাণী’ই এ বার ধেয়ে গেল দলীয় নেতৃত্বের দিকে। বিজেপি-র তারকা প্রার্থীদের একাংশকে নাম করে ‘নগরীর নটী’ বিশেষণ দেওয়া হোক বা দলীয় নেতৃত্বকে ‘প্রভু’ হিসেবে উল্লেখ করা— বাছা শব্দচয়নে শুধু কটাক্ষই নয়, বিজেপি নেতৃত্বকে প্রশ্নবাণেও বিদ্ধ করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার বিজেপি-র বর্ষীয়ান নেতা তথাগত টুইট করে দলের তিন তারকা প্রার্থী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, পায়েল সরকার ও তনুশ্রী চক্রবর্তীকে টিকিট দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। ওই তিন প্রার্থীর কার্যকলাপ নিয়ে প্রশ্ন তোলার পাশাপাশি দিলীপ ঘোষ, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, শিব প্রকাশ, অরবিন্দ মেননের ভূমিকাকেও জিজ্ঞাসাচিহ্নের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছেন তিনি। তথাগত মঙ্গলবার সকালে টুইট করেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘পায়েল শ্রাবন্তী পার্নো ইত্যাদি ‘নগরীর নটীরা’ নির্বাচনের টাকা নিয়ে কেলি করে বেড়িয়েছেন আর মদন মিত্রর সঙ্গে নৌকাবিলাসে গিয়ে সেলফি তুলেছেন (এবং হেরে ভূত হয়েছেন) তাঁদেরকে টিকিট দিয়েছিল কে? কেনই বা দিয়েছিল? দিলীপ-কৈলাশ-শিবপ্রকাশ-অরবিন্দ প্রভুরা একটু আলোকপাত করবেন কি’?

Advertisement

এর পর তিনি আর একটি টুইট করে আগের বক্তব্যে একটু সংশোধন করেন। সেখানে তিনি জানান, পার্নো নয় ওই নামটি তনুশ্রী চক্রবর্তী হবে। তিনি প্রথমে ভুল করে লিখে ফেলেছিলেন বলে জানিয়েছেন তথাগত।


রাজনীতিতে পোড় খাওয়া তথাগতর বেহিসেবি মন্তব্য নিয়ে আগেও বিতর্ক হয়েছে। বিরোধীদের উদ্দেশে তাঁর মন্তব্য নিয়ে আগেও বহু বার সমালোচিত হয়েছেন তিনি। এ বার দলের দিকে তোলা তাঁর প্রশ্নে রীতিমতো অস্বস্তিতে দল। প্রকাশ্যে কোনও মন্তব্য না করলেও বিজেপি নেতাদের তরফে জানানো হয়েছে, এটা তথাগতর নিজের বক্তব্য। দলের মন্তব্য নয়।

ত্রিপুরা ও মেঘালয়ের রাজ্যপাল পদ থেকে অবসর নেওয়ার পরে ফের সক্রিয় রাজনীতিতে ফিরেছিলেন তথাগত। বিজেপি সূত্রে খবর, বিধানসভায় ভবানীপুর কেন্দ্র থেকে লড়তে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাঁকে না দিয়ে রুদ্রনীল ঘোষকে টিকিট দেয় দল। সেই সময়েও নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বর্ষীয়ান এই বিজেপি নেতা। নির্বাচনে দল খারাপ ফল করার পর এ বার নেতৃত্বের নাম করেই তোপ দাগলেন তথাগত।

Advertisement