• সায়নী ঘটক
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘আমাকেও এ বার অন্য ভাবে দেখুন দর্শক’

Joydeep Ahlayat
জয়দীপ অহলাওয়ত।

সদ্য মুক্তি পেয়েছে অনুষ্কা শর্মার প্রযোজনায় পরবর্তী ওয়েব সিরিজ় ‘পাতাললোক’-এর ট্রেলার। সেখানে ইনস্পেক্টর হাতিরামের চরিত্রে বলিউডের ‘টাফ গাই’ জয়দীপ অহলাওয়ত। ‘রাজ়ি’তে আলিয়া ভট্টের ট্রেনার থেকে ‘বাগী থ্রি’-এর কমিক্যাল গ্যাংস্টার আইপিএল— সব ধরনের চরিত্রেই স্বচ্ছন্দ অভিনেতা। ‘গ্যাংস অব ওয়াসেপুর’-এর শাহিদ খান কিংবা হালের ‘বার্ড অব ব্লাড’-এর তনবীর শেহজ়াদের চরিত্রে জয়দীপকে মনে রেখেছেন দর্শক। তবে এ যাবৎ তাঁকে অ্যাকশন কিংবা গ্যাংস্টার-মুভিতেই বেশি দেখা গিয়েছে। হরিয়ানার ছ’ফুট এক ইঞ্চির জাঠ অভিনেতার চেহারাটাই কি তাঁকে বারবার টাইপকাস্ট করে দিচ্ছে? জবাবে হেসে ফেললেন জয়দীপ, ‘‘আমারও মাঝে মাঝে এটা মনে হয় জানেন। কিন্তু এটাও ঠিক, কেরিয়ারের দশ বছর পেরিয়ে গিয়েছে, এর মধ্যেও বিভিন্ন ধরনের চরিত্র করে ফেলেছি। পর্দায় আমিও রোম্যান্স করতে চাই, কমেডি করতে চাই। আমাকে পর্দায় অন্য ধরনের চরিত্রে কী রকম লাগে, চাই সেটাও দর্শক জানুন।’’

ফিল্ম আর ওয়েব— দু’টি মাধ্যমেই চুটিয়ে কাজ করছেন জয়দীপ। দুই প্ল্যাটফর্মের মধ্যে বিশেষ ফারাক করেন না তিনি। শশাঙ্ক খৈতানের পরিচালনায় নেটফ্লিক্স ফিল্মও যেমন হাতে রয়েছে, তেমনই লকডাউনের আগেই শেষ করেছেন ‘খালি পিলি’ ছবির শুটিং। ‘কম্যান্ডো’, ‘বাগী থ্রি’র মতো কমার্শিয়াল ছবি এবং দৃশ্যম ফিল্মসের ‘ট্রিস্ট উইথ ডেস্টিনি’র মতো ছবিতে সমান স্বাচ্ছন্দ্য ও পারদর্শিতায় পারফর্ম করেন জয়দীপ। তাঁর কাছে দুটোই সমান গুরুত্বপূর্ণ। ‘‘নিউ ইয়র্কে ‘ট্রাইবেকা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল’এ যাওয়ার কথা ছিল এই সময়ে ‘ট্রিস্ট উইথ ডেস্টিনি’ নিয়ে, কিন্তু লকডাউনের জন্য সব বাতিল হয়ে গেল। এখন ঘরে বসে বই পড়ে আর সিনেমা দেখেই সময় কাটছে,’’ বললেন জয়দীপ।

‘খালি পিলি’তে ঈশান খট্টর, অনন্যা পাণ্ডে, ‘বাগী থ্রি’র টাইগার শ্রফ, ‘রাজ়ি’তে আলিয়ার মতোই ‘পাতাললোক’-এও এই প্রজন্মের আর এক তরুণ অভিনেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাজ করেছেন জয়দীপ। ‘‘এখনকার ছেলেমেয়েরা যা ট্যালেন্টেড, ওদের প্রত্যেকের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। আমি যখন ফিল্ম স্কুলের ছাত্র ছিলাম, তখন আর্ট-হাউস ঘরানার অভিনেতাদের আইডল মনে করা হত। এখন এ ধরনের বিভেদ আর নেই। অনেকে ভাবেন, কমার্শিয়াল প্রজেক্টে অভিনয়ের জায়গাই থাকে না। কিন্তু এই ধারণা ঠিক নয়। সেখানেও কিন্তু অনেক পরিশ্রম করতে হয়। সেই সঙ্গে অনেক বেশি সংখ্যক মানুষের কাছেও পৌঁছনো যায়,’’ বললেন পুণে এফটিআইআই-এর এই প্রাক্তনী।

আরও পড়ুন: সলমন খানের বিতর্কিত অডিয়ো টেপ, নেস ওয়াদিয়ার সঙ্গে হাতাহাতি... বিতর্ক পিছু ছাড়েনি

অবশ্য ফিল্ম স্কুল নয়, হরিয়ানার আর পাঁচজন যুবকের মতো জয়দীপেরও আর্মিতে যোগ দেওয়ার ইচ্ছে ছিল কমবয়স থেকেই। ‘‘আমাদের ওখানে আর্মিতে যোগদান করাটা একটা সোয়্যাগ। আমার প্রচুর বন্ধু বান্ধবও রয়েছে আর্মিতে। আমিও পরীক্ষা দিয়েছিলাম, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ক্লিয়ার করতে পারিনি। একাধিক বার ব্যর্থ হয়ে শেষে আশা ছেড়ে দিয়েছিলাম,’’ মনে করলেন জয়দীপ। তবে স্টেজ পারফরম্যান্স ছোট থেকে প্রিয় ছিল তাঁর। সেই ভালবাসাই শেষ পর্যন্ত মুম্বইয়ে টেনে নিয়ে আসে তাঁকে। তার পর আর পিছন ফিরতে হয়নি। 

আরও পড়ুন: যৌন দৃশ্যে প্রথম বার অভিনয় করতে গিয়ে কেঁপে উঠেছিলাম

প্রিয়দর্শনের ‘খট্টা মিঠা’য় বড় ব্রেক পেয়েছিলেন জয়দীপ। তার পর থেকে প্রায় এক দশকের কাছাকাছি হতে চলল জয়দীপের বলিউড-জার্নি। রুপোলি পর্দার ‘অ্যাকশন গাই’ আপাতত অপেক্ষায়, লকডাউন-শেষে কবে কাজে ফিরবেন।

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণছবিভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকাকোন দিনকোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন