অন্যায়ের প্রতিবাদ অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় বরাবর বেশ জোরালো ভাবেই করে এসেছেন। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে নেগেটিভ কমেন্টের জবাব দিয়েছেন শক্ত ভাবেই। ফের একবার সরব হলেন অভিনেত্রী।সম্প্রতি এক ফেসবুক ব্যবহারকারী মেসেঞ্জারে অভিনেত্রীকে অশালীন মেসেজ পাঠায়। শুধু তাই নয়, স্বস্তিকার সঙ্গে রাত্রিযাপন করার কুপ্রস্তাবও দেয় সেই ব্যক্তি। সেই মেসেজেরই যোগ্য জবাব দেন স্বস্তিকা।

ওই ফেসবুক ব্যবহারকারীর মেসেজের স্ক্রিনশট সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে ব্যক্তির নাম উল্লেখ করে স্বস্তিকা লেখেন, ‘উনি বিবাহিত এবং অনুমান করা যায় সমাজের অংশ। আমি নিশ্চিত ওনার স্ত্রী এবং পরিবারের সবাই খুব সম্মানিত হবেন ওনার আসল চেহারাটা দেখে।’স্বস্তিকা আরও যোগ করেন,‘বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মনে করা হয় অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত মানেই তিনি যৌনকর্মী, এদের বিচার কে করবে?’

আরও পড়ুন- অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলার দুবাই ডায়েরি, দেখে নিন ফোটো অ্যালবাম

আরও পড়ুন-বিয়ের পর এই প্রথম সিঁদুর খেললাম: বিপাশা বসু

গোটা ঘটনায় স্বস্তিকার সাহসের প্রশংসায় ফেটে পড়েছে তাঁর অগণিত ভক্তকুল। তিনি যে ভাবে ওই ব্যক্তির মুখোশ জনসমক্ষে খুলে দিয়েছেন তাতে তাঁর সাহসিকতায় নেটিজেনরা পঞ্চমুখ। যদিও ওই ব্যক্তি স্বস্তিকার শেয়ার করা স্ক্রিনশটে পরে মন্তব্য করে, ‘আমার পেজ হ্যাকড হয়ে গিয়েছিল। আমি সত্যি জানিনা এসব কীভাবে হয়ে গেল। আমি ক্ষমা চাইছি। দয়া করে আপনি এই পোস্টটা মুছে দিন।’ যদিও তার ওই মন্তব্যকে ‘সাফাই’ হিসেবেই ধরে নিয়েছেন স্বস্তিকা ফ্যানেরা। কেউ লিখেছেন, ‘আপনি কোন মহান ব্যক্তি যে আপনার প্রোফাইল হ্যাক হবে? এসব গল্প দেবেন না।’ আবার কারও বক্তব্য, ‘পুলিশ দিয়ে আপনাকে পেটানো উচিত।’

দেখে নিন সেই মেসেজ 

 

এ রকমই অশালীন মেসেজ পাঠান ওই ব্যক্তি 

 

বরাবরই নিজের মতামত খোলাখুলি বলতেই পছন্দ করেন ওই অভিনেত্রী। কিছু দিন আগে স্বস্তিকার এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে একজন মন্তব্য করেন, ‘যৌনকর্মীর মতো লাগে।’ গোটা ঘটনায় মাথা ঠান্ডা রেখে স্বস্তিকা সেই ব্যক্তিকে লিখেছিলেন, ‘আমি যৌনকর্মীদের ভালবাসি। ওঁরাও সমাজের অংশ, তাই না? সমাজের যত নোংরা নিজের শরীর দিয়ে পরিষ্কার করেন ওঁরা। তা না হলে সেই নোংরা আমার আপনার মতো ভদ্রলোকের বাড়িতে এসে ঢুকে পড়ত।’