ক্রমাগত হুমকিতে বীতশ্রদ্ধ হয়ে টুইটার অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিলেন পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ। গেরুয়া ঝড়ের প্রভাবে যেখানে বলিউডের অধিকাংশই কেন্দ্রীয় সরকারের স্তুতিতে রত, সেখানে অনুরাগের অবস্থান বিরোধী শিবিরেই। এর মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের একাধিক কার্যকলাপের বিরোধিতা করেছেন পরিচালক। মাসখানেক আগে অনুরাগের মেয়ে আলিয়াকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশে তা উল্লেখ করে টুইটও করেন পরিচালক। তার পরে মুম্বই পুলিশ পদক্ষেপও করে। কিন্তু সেটা যে যথেষ্ট ছিল না অনুরাগের এই সিদ্ধান্তই তার প্রমাণ। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদ করা নিয়েও বিরোধিতা করেন তিনি। 

টুইটার ছাড়ার আগে অনুরাগ লেখেন, ‘আমার বাবা-মা, মেয়েকে ক্রমাগত হুমকি দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এই নিয়ে কথা বলে কোনও লাভ নেই। যুক্তি দিয়ে সব কিছু বিচার করা যায় না। ঠগের রাজত্ব চলছে। আর এটা ক্রমশই বাড়ছে।’ তার পর আরও একটি টুইট করে অনুরাগ জানিয়ে দেন, তিনি টুইটার ছাড়ছেন। পরিচালকের এই টুইট নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে চাপানউতোর।