×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

‘অভিনয় ও রাজনৈতিক জগতে অপূরণীয় ক্ষতি’, তাপস পালের প্রয়াণে শোকবার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১০:৪০
রাজনীতির ময়দানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাপস পাল—ফাইল চিত্র

রাজনীতির ময়দানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাপস পাল—ফাইল চিত্র

তিনি বিশিষ্ট অভিনেতা। তাঁর দলের প্রাক্তন সাংসদও। মঙ্গলবার ভোরে কৃষ্ণনগরের প্রাক্তন সাংসদ তাপস পালের প্রয়াণে শ্রদ্ধা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের তরফে একটি শোকবার্তায় মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ‘‘বিশিষ্ট অভিনেতা ও প্রাক্তন সাংসদ তাপস পালের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি আজ ভোরে মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তাঁর অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র ‘দাদার কীর্তি’, ‘সাহেব’, ‘ভালবাসা ভালবাসা’, ‘অনুরাগের ছোঁয়া’, ‘অমর বন্ধন’ ইত্যাদি। তিনি হিন্দি সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন।’’

২০০১ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের হাত ধরেই রাজনৈতিক কেরিয়ার শুরু করেছিলেন তাপস পাল। ওই বছর আলিপুর কেন্দ্র থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হন তিনি। এর পর ২০০৯ সালে লোকসভা ভোটে কৃষ্ণনগর কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৪ সালেও ওই কেন্দ্র থেকে ফের জয়ী হন তিনি। সে কথাও শোকবার্তায় তুলে ধরেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Advertisement

আরও পড়ুন: তাপস পালের জীবনাবসান, শোকস্তব্ধ অভিনয় জগৎ​

আরও পড়ুন: ‘উত্তমকুমারের পর অন্যতম সেরা অভিনেতা তাপসদা’, স্মৃতিচারণায় রচনা

অভিনেতা হিসাবে তাপস পাল কোন কোন মাইল স্টোন ছুঁয়েছেন তা তুলে ধরেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি লিখেছেন, ‘‘পশ্চিমবঙ্গ সরকার ২০১২ সালে তাঁকে বিশেষ চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করে। এ ছাড়া তিনি ফিল্ম ফেয়ার ও কলাকার পুরস্কার পান। তাঁর প্রয়াণে অভিনয় ও রাজনৈতিক জগতে অপূরণীয় ক্ষতি হল।’’ তাপস পালের আত্মীয়-পরিজনদেরও সমবেদনা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Advertisement