×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৫ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

জ্ঞান ফেরাতে স্ক্রাবারের ব্যবহার! সোশ্যালে ট্রোলড ধারাবাহিক ‘কৃষ্ণকলি’

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২১ অগস্ট ২০২০ ১৫:২১
‘কৃষ্ণকলি’ সিরিয়ালের একটি দৃশ্য়।

‘কৃষ্ণকলি’ সিরিয়ালের একটি দৃশ্য়।

কোমায় চলে যাওয়া রোগীর জ্ঞান ফেরাতে ডাক্তারবাবু সাহায্য নিচ্ছেন বাথরুম পরিষ্কার করার স্ক্রাবারের! এমন দৃশ্য বাস্তবে দূরঅস্ত্, কল্পনারও অতীত। কিন্তু এমনটাই যে ঘটেছে পর পর দু’সপ্তাহের সেরা মেগা ‘কৃষ্ণকলি’-তে! সোশ্যালে সেই দৃশ্য ছড়াতেই ব্যঙ্গের পাশপাশি সমালোচনায় মুখর নেটাগরিকেরা। বাংলা ধারাবাহিকের মান কোথায় গিয়ে ঠেকেছে, এমন প্রশ্নও তুলেছেন কেউ কেউ।

কেমন সেই দৃশ্য? মেগার একটি দৃশ্যে দেখা গিয়েছে, এক জন চিকিৎসক কোমায় আচ্ছন্ন রোগীর জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করছেন। সেখানেই মেশিনের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে এক জোড়া বাথরুমের স্ক্রাবার!

Advertisement



সিরিয়ালের যে দৃশ্য নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে।

এমন ‘সিলি মিসটেক’ কী করে ‘কৃষ্ণকলি’র মতো ধারাবাহিকে দেখা গেল? প্রশ্নটা প্রযোজক সুশান্ত দাসকে করতেই ভুল স্বীকার করে প্রথমে ক্ষমা চেয়ে নিলেন তিনি। তার পর জানালেন, ‘‘দ্রুত কাজ তুলতে অনেক সময়েই আমরা ‘চিটিং’ করি, প্রকৃত জিনিসের বদলে তার বিকল্প ব্যবহার করে। এটাও সেই রকমই ছিল। পাঁচ দিনে সাত দিনের কাজ করতে হচ্ছে। না চাইলেও এ ধরনের ত্রুটি হয়েই যায়।’’

আরও পড়ুন: কাজে ফিরছেন দুই বচ্চন

একই সঙ্গে প্রযোজকের দাবি, ৭০০ পর্বের পরেও মেগার রেটিং ১০.২। এটা ইন্ডাস্ট্রির অনেকে মেনে নিতে পারছেন না। যেমন, বিভান, নীলের করোনার সময় ইন্ডাস্ট্রিতে রটে গেল ইউনিটের ১৮ জন এই সংক্রমণে আক্রান্ত! মেগার উন্নতি রুখতে সম্ভবত এটাও তেমনই অপপ্রচার। জি ফাইভ অ্যাপে দেখানো পর্বের এই অংশ দেখে যে ভাবে সোশ্যালে মন্তব্য করা হয়েছে, এটা সাধারণত হয় না।

যদিও শাপে বর হয়েছে ইউনিটের ক্ষেত্রে। আজ, শুক্রূার ছোট পর্দায় সম্প্রচারণের আগে বাদ দেওয়া হয়েছে এই দৃশ্য।

আরও পড়ুন: ওয়েবে স্মৃতির বুনন, মহালয়ায় তারাদের শেষ তর্পণ

দৃশ্যটি দেখার পরেই ওই অংশের স্ক্রিন শট নিয়ে নেটাগরিকরা তা টুইটারে ছেড়ে দেন। ব্যস, ভাইরাল সেই সিন। মন্তব্যে ছয়লাপ নেট দেওয়াল। টুইটার থেকে এর পর সেই দৃশ্য জায়গা করে নেয় এক জনের ফেসবুক পেজে। সঙ্গে ক্যাপশন, ‘অতিমারির সময় চ্যানেল কর্তৃপক্ষের সচেতনতার মান দেখে চমৎকৃত!’ আর চুপ থাকেন নেটাগরিকেরা? তাঁদের এক জনের দাবি, ‘‘স্ক্রাবার দিয়ে আসলে রোগীর বুকের লোম তুলছিলেন ডাক্তারবাবু। কোমা থেকে ফেরানোর জন্য!’’ আর এক জনের মন্তব্য, ‘‘কী কুক্ষণে, ‘গ্রে অ্যানাটমি’-র এপিসোড দেখা শেষ করে এটা দেখতে বসেছিলাম!’’

Advertisement