Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

#মিটু ঝড়ে টালমাটাল বলিউড

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ১০ অক্টোবর ২০১৮ ০৩:০৯

অভিনেতা নানা পাটেকর, পরিচালক বিকাশ বহেল-এর পরে ‘সংস্কারী বাপুজি’ অলোক নাথ। #মিটু-র প্যান্ডোরার বাক্স খুলে গিয়ে এই পর্বে সংবাদমাধ্যম এবং বিনোদন জগতে যতগুলি নিগ্রহের অভিযোগ উঠছে, তার মধ্যে এখনও অবধি সবচেয়ে মারাত্মক অভিযোগ অলোকের বিরুদ্ধেই। একাধিক বার ধর্ষণের অভিযোগ উঠছে তাঁর নামে।

নব্বই দশকের জনপ্রিয় টিভি সিরিজের লেখক-প্রযোজক বিনতা নন্দা আগের দিন তাঁর ফেসবুক পোস্টে দু’দশক আগে তাঁর উপরে যে নির্যাতন হয়েছিল, তা সবিস্তার লিখেছেন। অলোক নাথের নাম না করে সেখানে শুধু ‘সংস্কারী’ অভিনেতা বলা ছিল। পোস্টটি ভাইরাল হতে দেরি হয়নি। এ দিন সাংবাদিক বৈঠকে অলোকের নামও নেন বিনতা। প্রবীণ অভিনেতাটি পরে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘‘বিষয়টি স্বীকার বা অস্বীকার, কিছুই করছি না! ধর্ষণ নিশ্চয়ই হয়েছে। কিন্তু অন্য কেউ তার জন্য দায়ী।’’ বিনতার পোস্ট বলছে, বিনতারই লেখা টিভি সিরিজ ‘তারা’য় সহ-অভিনেত্রীকে লাগাতার নিগ্রহ করছিলেন অলোক। বিনতা তখন অলোককে ওই সিরিজ থেকে বাদ দেন। তার পর থেকেই পরিস্থিতি ক্রমশ ঘোরালো হয়। প্রথমত অলোককে ফেরাতে চাপ আসতে থাকে, দ্বিতীয়ত বিনতার কাজের সুযোগ কমতে থাকে। বিনতা লিখেছেন, কাজের স্বার্থে তাঁকে অলোকের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে হচ্ছিল। অলোকের বাড়ির এক পার্টিতে সম্ভবত তাঁর পানীয়ের মধ্যে কিছু মিশিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। অস্বস্তি বোধ করায় পার্টি থেকে বেরিয়ে বিনতা একাই বাড়ি ফিরছিলেন। ‘‘মাঝপথে অলোক গাড়ি নিয়ে হাজির। বললেন, বাড়িতে নামিয়ে দেবেন। এর পর শুধু মনে আছে, আমার মুখে মদ ঢালা হচ্ছে আর উপর্যুপরি ধর্ষণ করা হচ্ছে। ঘুম ভাঙল পরদিন বিকেলে। যন্ত্রণায় বিছানা ছেড়ে উঠতে পারছিলাম না।’’ রুজির টানে অলোকের আরও একটি সিরিজ লেখার কাজ করেন। তখনও অলোক তাঁকে ফের ধর্ষণ করেন বলে দাবি বিনতার। তাঁর অভিযোগ আজ আরও পোক্ত হয়ে গিয়েছে ‘তারা’ সিরিজের অভিনেত্রী নবনীত নিশান মুখ খোলায়। অলোকের নাম তিনি নেননি, কিন্তু বিনতাকে সমর্থন করে বলেছেন, টিভি সিরিজের শুটিংয়ে চার বছর ধরে হেনস্থা সহ্য করেছিলেন তিনি নিজে। তার পরে সহ-অভিনেতাকে চড় মেরে বিষয়টিতে ইতি টানেন।

‘সিনে অ্যান্ড টিভি আর্টিস্টস অ্যাসোসিয়েশন’ (সিন্টা) অলোককে নোটিস পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিনতা খুশি যে, বছর কয়েক আগেও যখন তিনি মুখ খুলেছিলেন, তখন কেউ নড়ে বসেনি। আজ পরিস্থিতি বদলেছে, এটাই লাভ। নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে অভিযোগেও অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের বিবৃতি রেকর্ড করা হবে বলে জানিয়েছে মুম্বই পুলিশ। মহারাষ্ট্র মহিলা কমিশন নানা, নৃত্যপরিচালক গণেশ আচার্য, প্রযোজক সামি সিদ্দিকি, পরিচালক রাকেশ সারংকে নোটিস পাঠাচ্ছে। এ দিনই ‘স্ত্রী’ ছবির অভিনেত্রী ফ্লোরা সাইনি শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ এনেছেন প্রযোজক গৌরাঙ্গ দোশির বিরুদ্ধে। ফ্লোরার দাবি, ‘‘এক বছর নিগ্রহ সহ্য করে ভাঙা চোয়াল আর ক্ষতবিক্ষত মন নিয়ে ফিরেছি।’’ আঘাতের ছবিও দিয়েছেন ফেসবুকে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement