Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বিনোদন

‘ইলাস্টিক’, ‘উইন্ডো সিট’... এগুলো কোন সুপারহিট ফিল্মের পুরনো নাম জানেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৩ জুন ২০২০ ১৭:৩২
ফিল্মের নাম বদলে যাওয়া বলিউডে নতুন কিছু নয়। অনেক সময়ই আগে থাকতে ভেবে রাখা নাম পাল্টে দিতে হয়। কখনও বিতর্কের জন্য ঘটে নাম-বদল। কখনও আবার কপিরাইট-সমস্যা জটিলতার সৃষ্টি করে। রেহাই পেতে বদলাতে হয় নাম। দেখে নেওয়া যাক এমনই কয়েকটা বলিউডি সিনেমা, যেগুলোতে ঘটেছে নাম-পরিবর্তন।

‘তুম হি হো’ সিনেমার নাম বদলে গিয়েছিল ‘হামারি অধুরি কহানি’-তে। মনে করা হয়েছিল, ‘তুম হি হো’ নাম যথাযথ লাগছে না। তাই এই পরিবর্তন। ইমরান হাসমি, বিদ্যা বালান, রাজকুমার রাও ছিলেন ২০১৫ সালে হওয়া এই সিনেমাতে।
Advertisement
২০০৪ সালে যশ চোপড়ার ‘বীরজারা’ সিনেমা ঝড় তুলেছিল সিনেমামহলে। শাহরুখ খান, রানি মুখোপাধ্যায়, প্রীতি জিন্টা অভিনীত এই সিনেমার নাম কিন্তু প্রথমে অন্য ছিল। ‘ইয়ে কাঁহা আ গয়ে হাম’ নাম খুব পছন্দ ছিল যশ চোপড়ার। কিন্তু, পরে দুই চরিত্রের নামে রাখা হয় সিনেমার নাম।

২০০৯ সালে ইমতিয়াজ আলির পরিচালনায় মুক্তি পেয়েছিল ‘লাভ আজ কাল’ সিনেমা। যাতে অভিনয় করেছিলেন সইফ আলি খান, দীপিকা পাড়ুকোন, ঋষি কপূররা। প্রাথমিক ভাবে এই সিনেমার নাম ছিল ‘ইলাস্টিক’। তা পাল্টানো হয় সেন্সর বোর্ডের কাছে পাঠানোর আগে।
Advertisement
২০১৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল ইমরান খান, কঙ্গনা রাওয়াতের সিনেমা ‘কাট্টি বাট্টি।’ যা প্রথমে ‘সালি কুত্তিয়া’ নামে শুটিং চলেছিল। সেন্সর বোর্ডে ওই নামে সমস্যা হতে পারে বলে মনে করা হয়েছিল। পরিচালক নিখিল আডবাণীর সিনেমার নাম বদলে গিয়েছিল তাই।

পরিচালক ইমতিয়াজ আলির সিনেমায় সফরের একটা বড় ভূমিকা থাকে। ২০১৫ সালে মুক্তি পাওয়া রণবীর কপূর, দীপিকা পাড়ুকোনের ‘তামাশা’ সিনেমাও ব্যতিক্রম নয়। প্রাথমিক ভাবে সিনেমার নাম তাই রাখা হয়েছিল ‘উইন্ডো সিট’।

২০১৩ সালে পরিচালক সঞ্জয় লীলা ভন্সালীর ‘গোলিয়ো কি রাসলীলা রাম লীলা’ মুক্তি পায়। প্রাথমিক ভাবে সিনেমার নাম ঠিক হয়েছিল ‘রামলীলা।’ কিন্তু রামের নাম থাকার কারণে বিতর্ক তৈরি হয়। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লাগতে পারে, এই মর্মে আবেদন জমা পড়ে মধ্যপ্রদেশ হাইকোর্টে। তাই নামের আগে আরও কিছু শব্দ জুড়ে দেওয়া হয়।

২০০৭ সালে মুক্তি পেয়েই সাড়া ফেলেছিল পরিচালক ইমতিয়াজ আলির ‘জব উই মেট।’ কিন্তু ছবির নাম নিয়ে সংশয় ছিল। এক বার ভাবা হয়েছিল নাম রাখা হবে ‘পঞ্জাব এক্সপ্রেস।’ পরে ভাবা হয় ‘ইশক ভায়া ভাটিন্ডা’ নামের কথা। শেষ পর্যন্ত শাহিদ কপূর, করিনা কপূরের সিনেমার নাম হয় ‘জব উই মেট।’

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গাঁধীর হত্যাকাণ্ডের ঘটনা নিয়ে ২০১৩ সালে পরিচালক সুজিত সরকার তৈরি করেন ‘মাদ্রাজ কাফে’ সিনেমা। যাতে ছিলেন জন আব্রাহাম। প্রাথমিক ভাবে ঠিক হয়েছিল যে এই রাজনৈতিক থ্রিলার ছবির নাম হবে ‘জাফনা।’ কিন্তু এই নাম শ্রীলঙ্কার তরফে গৃহীত হয়নি। তখন পাল্টাতে হয় নাম।

পরিচালক যশ চোপড়ার খুব পছন্দের নাম ছিল ‘ইয়ে কাঁহা আ গয়ে হাম’ নাম। যা তাঁর ‘সিলসিলা’ সিনেমার একটা গান থেকে নেওয়া। ২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া শাহরুখ খান, ক্যাটরিনা কাইফ, অনুষ্কা শর্মা অভিনীত ‘জব তক হ্যায় জান’ সিনেমার নামও প্রাথমিক ভাবে ওটাই ছিল।

‘আর রাজকুমার’ নামে ২০১৩ সালে মুক্তি পায় শাহিদ কপূর, সোনাক্ষী সিনহা, সোনু সুদের সিনেমা। পরিচালক ছিলেন প্রভু দেবা। প্রথমে সিনেমার নাম ছিল ‘র্যা ম্বো রাজকুমার।’ কিন্তু হলিউডি ‘র্যা ম্বো’ সিনেমার নির্মাতাদের থেকে এই নাম ব্যবহারের অনুমতি মেলেনি।

২০১৩ সালে মুক্তি পায় ‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন মুম্বই দোবারা’ সিনেমা। যাতে ছিলেন অক্ষয় কুমার, সোনাক্ষী সিনহা, ইমরান খান। প্রথমে ঠিক ছিল সিনেমার নাম হবে ‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন মুম্বই ২’। জ্যোতিষচর্চায় প্রতি বিশ্বাসের কারণে বক্সঅফিসে সাফল্যের জন্য নাম পাল্টানো হয়েছিল সিনেমার।

২০১৪ সালে মুক্তি পায় ‘ফাইন্ডিং ফ্যানি।’ অর্জুন কপূর, দীপিকা পাড়ুকোন, ডিম্পল কাপাডিয়া অভিনীত এই সিনেমার নাম ঠিক হয়েছিল ‘ফাইন্ডিং ফ্যানি ফার্নান্ডেজ।’ দর্শকদের কাছে আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য ছোট করা হয় নাম।

২০১২ সালে মুক্তি পেয়েছিল ইমরান খান, করিনা কপূরের ‘এক ম্যায় অর এক তু’ সিনেমা। শুরুতে এই সিনেমার নাম ছিল ‘শর্ট টার্ম শাদি।’ এই নাম দর্শক মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে, এই আশঙ্কা থেকেই পাল্টানো হয় নাম।

২০১১ সালে পরিচালক জোয়া আখতারের ‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’ সাড়া ফেলেছিল। অভিনয় করেছিলেন হৃতিক রোশন, ফারহান আখতার, অভয় দেওল, ক্যাটরিনা কাইফরা। এই সিনেমার নাম ভাবা হয়েছিল ‘রানিং উইদ দ্য বুলস’। কিন্তু ভারতীয় দর্শকদের কথা ভেবে নাম পাল্টানো হয়।

২০১৩ সালে মুক্তি পায় সইফ আলি খানের ‘বুলেট রাজা।’ উত্তরপ্রদেশের এক ব্যক্তিকে নিয়ে এই সিনেমা। তাই ঠিক হয়েছিল যে সিনেমার নাম হবে ‘জয় রাম জি কী।’ কারণ, ওখানের মানুষ এই ভঙ্গিতেই কথা বলেন। কিন্তু, পরে পাল্টানো হয় নাম।

২০১৪ সালে মুক্তি পায় ‘টোটাল সিয়াপ্পা’ সিনেমা। অভিনয়ে ছিলেন আলি জাফর, সারা খান, ইয়ামি গৌতমরা। ঠিক ছিল নাম হবে ‘আমন কি আশা।’ কিন্তু এই নাম ব্যবহারের অনুমতি মেলেনি।

সলমন খান অভিনীত ‘জয় হো’ সিনেমার নাম ঠিক হয়েছিল ‘মেন্টাল’। সলমনের সঙ্গে ছিলেন ডেইজি শাহ, সানা খান, তাব্বুরা। কিন্তু, ‘মেন্টাল’ নামের মধ্যে একটা নেতিবাচক বার্তা থাকায় তা পাল্টানো হয়। প্রজাতন্ত্র দিবসের দিনে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমায় ইতিবাচক বার্তা দিতে চাওয়া হয়েছিল।