• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কঙ্গনা ইস্যুতে হৃতিকের পাশে দাঁড়ালেন ফারহান

Farhan Akhtar
ফেসবুকে খোলা চিঠি লিখলেন ফারহান। ছবি: ফারহানের ইনস্টাগ্রাম পেজের সৌজন্যে।

বলিউডের সবচেয়ে চর্চিত বিতর্কে এ বার মুখ খুললেন ফারহান আখতার। কঙ্গনা রানাউত এবং হৃতিক রোশনের ব্যক্তিগত সম্পর্কের কাটাছেঁড়ায় না গিয়ে সরাসরি রবিবার ফেসবুকে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন ফারহান। যে চিঠির প্রতিটি লাইনে হৃতিকের হয়ে সওয়াল করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন, কেন কঙ্গনার নগ্ন ছবি ফাঁস করেছিলেন হৃতিক? প্রশ্ন রঙ্গোলির

আরও পড়ুন, অনেক রাতে দরজা নক করেছিল মেয়েটা, মুখ খুললেন হৃতিক

ফারহান লিখেছেন, ‘‘... ফেস ভ্যালু দিয়ে গল্পটা বিশ্বাস করা যায় না। তাহলে অপরপক্ষের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ করা হয়। ... সব কিছু দূরে সরিয়ে রেখে শুধু এটা ভাবুন এখন কোন বিষয়গুলি নিয়ে কথা হচ্ছে...’’। ফারহানের দাবি, কঙ্গনার বেশিরভাগ অভিযোগ অত্যন্ত নিম্ন রুচির।

কঙ্গনার করা তিন হাজার মেল নিয়েও মন্তব্য করেছেন বলিউডের পরিচালক-অভিনেতা ফারহান। তিনি বলেছেন, ‘‘...কঙ্গনার বক্তব্য ওঁর অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে হৃতিক নিজেই নিজেকে হাজারের বেশি মেল করেছেন। যদি সাত বছর ধরে তাঁরা একে অপরের সঙ্গে সম্পর্কের মধ্যেই ছিলেন তাহলে এ সবের কী প্রয়োজন?’’

(ফারহান আখতারের ফেসবুক পোস্টটি পড়ুন)

 

কয়েকদিন আগে কঙ্গনার লাগাতার অভিযোগের পর শেষ পর্যন্ত ফেসবুকে একটি আত্মপক্ষ সমর্থনকারী পোস্ট লিখেছিলেন হৃতিক। এর পরই ফের পাল্টা তোপ দেগেছিলেন কঙ্গনার দিদি রঙ্গোলি চান্দেল। হৃতিকের ফেসবুক পোস্টের দাবিকে উড়িয়ে টুইটারে সে দিনই তিনি হৃতিক-কঙ্গনার কিছু ঘনিষ্ঠ ছবি পোস্ট করেন। সেই সঙ্গে রঙ্গোলির বিস্ফোরক মন্তব্য ছিল, ‘‘হৃতিকের কথা মতো মিডিয়ায় তুলে ধরা ছবি ছিল ফোটোশপের কারসাজি। এই বার প্রমাণ করুক, এই ছবিগুলি আসল না নকল?’’

এই ছবি প্রসঙ্গেও হৃতিকের হয়ে সওয়াল করেছেন ফারহান। পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘‘...ওই ছবিটা বিকৃত করা হয়েছে।... আসল ছবিটি একটি পার্টিতে অনেক বন্ধুরা এক সঙ্গে তুলেছিলেন। ওঁর স্ত্রীও ছিলেন (এখন প্রাক্তন-স্ত্রী)। কেন ইচ্ছে করে ছবিটা ক্রপ করা হল?’’

বলিউডের এই মুখরোচক গসিপ নিয়ে ফারহানের মন্তব্য, ‘‘অনেকেই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন। শুধু এক জন মহিলাকে বলতে দেওয়ার সুযোগ দিয়ে অনেকেই ভুল বুঝছেন। কিন্তু সেই বয়ানে এক বারও ভাবা হয়নি এতে কারও পরিবার এবং সন্তানদের উপর কী প্রভাব পড়তে পারে। হয়তো সবটাই টিআরপির জন্য। এটা অত্যন্ত নিম্নরুচির।’’ সে কারণেই নাকি হৃতিকের হয়ে এই খোলা চিঠিটি লিখেছেন ফারহান।

ফারহানের লেখার প্রশংসা করে টুইট করেছেন কর্ণ জোহরও।

তবে হৃতিক-কঙ্গনা বিতর্কে এই প্রথম নয়। ইতিমধ্যেই হৃতিকের পাশে দাঁড়িয়েছেন টুইঙ্কল খান্না, দিয়া মির্জা এবং কুণাল কপূররা। কঙ্গনার হয়ে আসরে নেমেছেন তাঁর দিদি রঙ্গোলি চান্দেল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন