Advertisement
০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

ফারুকীর ছবিতে ইরফান

বাংলাদেশের প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে ছবির প্রযোজনা করছেন টলিউডের প্রযোজক অশোক ধানুকা। অভিনয় করছেন পার্নো মিত্র। খবর দিচ্ছে আনন্দplusগত ছ’মাসে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে চমকপ্রদ ট্রেন্ড অবশ্যই ওপার বাংলার সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় ছবি বানানো। যার আনুষ্ঠানিক নাম ইন্দো-বাংলা জয়েন্ট প্রোডাকশন। সেই ইন্দো-বাংলা যৌথ প্রযোজনায় তৈরি একটি ছবির কাস্টিংয়ে এ বার বিরাট চমক।

শেষ আপডেট: ০২ মার্চ ২০১৬ ০০:৩৯
Share: Save:

গত ছ’মাসে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে চমকপ্রদ ট্রেন্ড অবশ্যই ওপার বাংলার সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় ছবি বানানো। যার আনুষ্ঠানিক নাম ইন্দো-বাংলা জয়েন্ট প্রোডাকশন। সেই ইন্দো-বাংলা যৌথ প্রযোজনায় তৈরি একটি ছবির কাস্টিংয়ে এ বার বিরাট চমক।

Advertisement

বাংলাদেশের পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ছবি ‘ডুব’‌য়ে কাজ করতে রাজি হয়েছেন বলিউড ও হলিউডের প্রথম সারির অভিনেতা ইরফান খান। ছবিটা একই সঙ্গে ইংরেজি আর বাংলায় বানানো হবে। ইংরাজিতে ছবির নাম, ‘নো বেড অব রোজেস’। চমক এখানেই থেমে থাকছে না। এই ছবিটা বাংলাদেশের জ্যাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে প্রযোজনা করছেন টলিউডের প্রথম সারির প্রযোজনা সংস্থা এসকে মুভিজ যার কর্ণধার অশোক ধানুকা।

মঙ্গলবার সকালে হলিউডের ‘ভ্যারাইটি’ ম্যাগাজিনের ওয়েবসাইটে খবরটা বেরিয়ে যাওয়ার পর গোটা টালিগ়ঞ্জ জুড়ে শুরু হয়ে গেছে প্রবল হইচই। মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশে তাঁকে ফোনে ধরা হলে, পরিচালক ফারুকী জানালেন তাঁরা নিজেরা কতটা উত্তেজিত ইরফানকে নিয়ে।

‘‘দেখুন, ইরফান বিশ্বমানের অভিনেতা। এমন অভিনেতা যিনি স্টিভেন স্পিলবার্গের প্রোডাকশন হাউজকেও ‘না’ বলে দিতে পারেন। তিনি যে আমার ছবিটা করতে রাজি হয়েছেন, এটার জন্য আমি ওঁর কাছে চিরকৃতজ্ঞ। স্ক্রিপ্ট ওঁর খুবই পছন্দ হয়েছে। এবং এই ছবিতে কো-প্রোডিউসর হওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইরফান। ওঁর প্রযোজনা সংস্থা ‘আই কে’ এই ছবির কো-প্রোডিউসর জ্যাজ মাল্টিমিডিয়া আর অশোক ধানুকার এসকে মুভিজের সঙ্গে,’’ বলছেন ফারুকী।

Advertisement

ইরফান ছাড়াও এই ছবিতে অভিনয় করছেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী নুসরত ইমরোজ তিশা এবং রোকেয়া প্রাচী। বাংলাদেশের অভিনেত্রীদের সঙ্গে এ পার বাংলারও কি কেউ থাকবেন ‘ডুব’ ছবিতে?

‘‘হ্যাঁ, অবশ্যই থাকবেন। পার্নো মিত্র থাকছেন এ ছবিতে। এ ছাড়া অভিনেতা হিসেবে থাকবেন খোদ প্রযোজক অশোক ধানুকা। উনি কাউকে জানাতে দিচ্ছেন না খবরটা, কিন্তু এই ছবিতে ওঁর চরিত্রটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ,’’ হাসতে হাসতে বলছিলেন পরিচালক।

ছবির শ্যুটিং শুরু হবে মার্চ মাসের শেষ থেকে। শ্যুটিং কি শুধু ঢাকাতে হবে? ‘‘প্রথম দিকের শ্যুটিং হবে ঢাকাতে। তার পর ছবির কিছু অংশের শ্যুটিং শিলিগুড়ির আশেপাশে করব,’’ বলছেন ফারুকী।

ইরফানের সঙ্গে একই ছবিতে কাজ করতে পারবেন, এটা ভেবেই যথেষ্ট উত্তেজিত পার্নো মিত্রও। ‘‘এই ছবিতে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর স্ক্রিপ্টটা অসাধারণ। আমি ওঁর প্রায় সব কাজ দেখেছি। ‘অ্যান্ট স্টোরি’, ‘টেলিভিশন’ থেকে ‘ফার্স্ট পার্সন সিঙ্গুলার নম্বর’। আর তা ছাড়া এই ছবিতে রয়েছেন ইরফান খান, যিনি আজকে ভারতবর্ষের অন্যতম সেরা অভিনেতা। আমি ভীষণ এক্সাইটেড। খুব মন দিয়ে নিজের বেস্ট কাজটা করতে চাই,’’ বলছেন পার্নো।

‘ডুব’ ছবির যৌথ প্রযোজনা করতে পারাটা যে তাঁদের প্রোডাকশন হাউজের জন্যও যথেষ্ট সম্মানের সেটাও একবাক্যে মানছেন এসকে মুভিজের হিমাংশু ধানুকা।

‘‘এক দিকে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর মতো পরিচালক। অন্যদিকে ইরফান খান। এ রকম একটা প্রোজেক্টের জন্য থাকতে পারাটা আমাদের ব্যানারের জন্য ভীষণ গর্বের। আমরা প্রথম থেকেই ইন্দো-বাংলা জয়েন্ট প্রোডাকশনের পক্ষে এবং আমরা যে ঠিক পথে এগোচ্ছি, ‘ডুব’ ছবিটা তার আর একটা বড় প্রমাণ,’’ বলছেন হিমাংশু ধানুকা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.