• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘চিড়িয়াখানা’য় যিশুর হোমওয়ার্ক

1

দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যোমকেশ-ছবি নিয়ে বিতর্কের রেশ কিছু দিন হল থেমেছে। সঙ্গে সঙ্গেই ব্যোমকেশকে নিয়ে পুরনো এক বিতর্ক ফের জেগে উঠল। সৌজন্যে অঞ্জন দত্ত!

অঞ্জন দত্তর পরিচালনায় ব্যোমকেশ-সিরিজের প্রথম ছবিটা যখন মুক্তি পেতে চলেছিল, সে সময়েই বিতর্কের শুরু। সব্বাই তখন জানতে অস্থির হয়ে পড়েছিলেন, অঞ্জনের ছবিটার উপর সত্যজিত্ রায়ের ‘চিড়িয়াখানা’ ছবিটার কোনও প্রভাব পড়েছে কি না! অঞ্জনও সাফ জানিয়েছিলেন, তেমন কিছু তাঁর ছবিতে চোখে পড়ার সম্ভাবনা নেই। তবে এ বার কিন্তু পরিচালক চার নম্বর ব্যোমকেশ-ছবির জন্য বেছে নিলেন সেই ‘চিড়িয়াখানা’ গল্পটিকেই। সে সঙ্গে জানিয়ে দিলেন, আর আবির চট্টোপাধ্যায় নন, এ বার তাঁর ছবিতে সত্যান্বেষী যিশু সেনগুপ্ত।

মানে, ফের এক নতুন বক্সী! আর পাক্কা ৪৮ বছর পরে ফের রুপোলি পর্দায় ‘চিড়িয়াখানা’-র ফিরে আসা!

তা, এ বারে কি সত্যজিত্ রায়ের পথে হাঁটবেন অঞ্জন?

প্রশ্নই ওঠে না। ‘চিড়িয়াখানা’ ত‌ৈরি করবেন অঞ্জন তাঁর নিজের স্টাইলে, স্পষ্ট জানাচ্ছেন যিশু।

আর উত্তম কুমার? এই ছবি দিয়েই তো উত্তম কুমারের জুতোয় যিশুর পা রাখা! এর আগে টলিপাড়া থেকে প্রসেনজিত্ চট্টোপাধ্যায়— যিশুর আগে যে কাজটা তাঁরা সেরে ফেলেছেন দু’-দু’বার। তার মধ্যে একটা আবার সেই সত্যজিত্ রায়-উত্তম কুমার কম্বো! এখন যিশুর ক্ষেত্রেও যেটা হতে চলেছে আর কী!

নতুন সত্যান্বেষীর খুব সহজ-সরল জবাব, “এমন তুলনা একেবারেই ঠিক নয়। মহানায়কের সমকক্ষ হওয়ার চেষ্টাই করবে না কেউ!”

এ বার কি তা হলে শ্যুটিং শুরুর পালা?

সামান্য দেরি আছে! আপাতত পরিচালক ব্যস্ত তাঁর আসন্ন ছবি ‘কহেন কবি কালিদাস’ নিয়ে। তার পর আছে ‘হ্যামলেট’ তৈরির কাজ। সব কিছু প্ল্যানমাফিক হলে, অঞ্জন তাঁর পরিচালনায় সত্যান্বেষী সিরিজের চতুর্থ ছবি শুরু করবেন তার পরেই। হাতে সময় আছে ঠিকই, কিন্তু ব্যোমকেশ মানে যিশুকে এখনই ‘হোমওয়ার্ক’ দিয়ে দিয়েছেন পরিচালক— শ্যুটিং শুরু হওয়ার আগে ‘চিড়িয়াখানা’ গল্পটি অন্তত পাঁচ বার তাঁকে পড়তেই হবে!

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন