Advertisement
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
Sunny Leone

Sunny Leone: ৭২ ঘণ্টার মধ্যে নাচের ভিডিয়ো সরান, না হলে..., সানি লিওনিকে হুমকি বিজেপি মন্ত্রীর!

নরোত্তম মনে করছেন, এই গানটিতে খোলামেলা পোশাকে নাচ করে হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছেন সানি।

বিপাকে সানি।

বিপাকে সানি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ ১৮:৩৩
Share: Save:

সানি লিওনিকে নিয়ে বিতর্ক যেন থামছেই না। এ বার সরাসরি তাঁকে ‘হুমকি’ দিয়ে বসলেন মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র। কিছু দিন আগেই যাঁর ‘হুমকি’র জেরে বাঙালি পোশাকশিল্পী সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়কে একটি বিজ্ঞাপনের ছবি প্রত্যাহার করতে হয়েছিল।

মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র রবিবার বলেন, সানি লিওনিকে তাঁর নাচের ভিডিয়ো নেটমাধ্যম থেকে সরিয়ে নিতে হবে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে। ১৯৬০-এ মুক্তিপ্রাপ্ত ‘কোহিনুর’ ছবির জনপ্রিয় গান ‘মধুবন মে রাধিকা নাচে’ গানটির রিমেক ভিডিয়োয় দেখা যায় সানিকে। যা নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে গত কয়েক দিন ধরেই। যা দেখে ক্ষুব্ধ উত্তরপ্রদেশের মথুরার পুরোহিতরা। তাঁদের অভিযোগ, রাধার নামে কুরুচিকর গান তৈরি করা হয়েছে। শুধু তাই নয় মথুরার পুরোহিতদের দাবি, সানির ভিডিয়োটি নিষিদ্ধ করা হোক। এই ভিডিয়ো হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন পুরোহিতদের একাংশ। এর পরই বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী নরোত্তমের এই হুমকি।

নরোত্তম মনে করছেন, এই গানটিতে খোলামেলা পোশাকে নাচ করে হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছেন সানি। গানটি যাঁরা রিমেক করেছেন, সেই শারিব-তোশির বিরুদ্ধেও এনেছেন একই অভিযোগ। ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এই ‘অশ্লীল’ ভিডিয়ো সরিয়ে ফেলার ‘হুমকি’ দিয়েছেন বিজেপি মন্ত্রী।

নরোত্তম এই ভিডিয়োয় সানিকে অন্তর্ভুক্ত করা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। স্পষ্টতই তাঁর ইঙ্গিত সানির অতীতের দিকে। মিউজিক ভিডিয়োটি সরিয়ে না নিলে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও হুমকি দিয়েছেন। তিনি বলেন, “কিছু মানুষ হিন্দু ভাবাবেগকে আঘাত করেই চলেছেন। রাধার জন্য আরাধনার মন্দির আছে। আমরা তাঁর কাছে প্রার্থনা করি। শারিব-তোশি নিজেদের ধর্ম নিয়ে যেমন ইচ্ছে গান তৈরি করতে পারেন। কিন্তু এ ধরনের গান আমাদের ভাবাবেগে আঘাত দেয়। তিন দিনের মধ্যে এই ভিডিয়ো সরানো না হলে আমি আইনি পদক্ষেপ করব।”

এর আগে বৃন্দাবনের সন্ত নবল গিরি মহারাজ হুমকি দিয়ে বলেন, “সরকার যদি এই গানকে নিষিদ্ধ না করে, কিংবা অভিনেত্রী সানির বিরুদ্ধে কোনও রকম পদক্ষেপ না করে, তা হলে আমরা মামলা দায়ের করব।”

শুধু সানি নন, নরোত্তমের তোপের মুখে পড়েছিলেন সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়ও। পোশাকশিল্পী তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে নিজের তৈরি করা মঙ্গলসূত্রের বেশ কয়েকটি ছবি দিয়েছিলেন। সেই বিজ্ঞাপনে মডেলদের পোশাক নিয়েই আপত্তি তোলে সমাজের একাংশ। বিজ্ঞাপনে অন্তর্বাস পরে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে দেখা গিয়েছে মডেলদের। তাঁদের গলায় মঙ্গলসূত্র। সানির মতোই সব্যসাচীকে হুমকি দিয়েছিলেন নরোত্তম। বলেছিলেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যদি বাংলার পোশাক শিল্পী ওই মঙ্গলসূত্রের বিজ্ঞাপন সরিয়ে না নেন, তা হলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিজেপি-র আইনি উপদেষ্টা আশুতোষ জে দুবে সব্যসাচীকে আইনি নোটিস পাঠালে সেই বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে নেন তিনি।
গত বুধবারই সানি অভিনীত ‘মধুবন মে রাধিকা নাচে’ ভিডিয়োটি প্রকাশিত হয়। নেপথ্য কণ্ঠ কণিকা কাপুর এবং অরিন্দম চক্রবর্তীর। ভিডিয়োটিতে সানিকে নাচ করতে দেখা গিয়েছে। যা নিয়েই বিতর্ক।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.