• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কঙ্গনার বিরুদ্ধেই মাদক-যোগের তদন্তে মুম্বই পুলিশ, পাল্টা চ্যালেঞ্জ নায়িকারও

Kangana Ranaut
—ফাইল চিত্র।

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই বলিউডের মাদক যোগ নিয়ে সরব তিনি। এ বার মাদক যোগ নিয়ে কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধেই তদন্তের নির্দেশ দিল মহারাষ্ট্র সরকার। কঙ্গনার নিজে মাদক নেন এবং তাঁকেও মাদক নিতে বাধ্য করেন বলে কয়েক বছর আগে সংবাদমাধ্যমে অভিযোগ করেছিলেন তাঁর প্রাক্তন প্রেমিক অধ্যয়ন সুমন। অধ্যয়নের সেই ভিডিয়োকে হাতিয়ার করেই কঙ্গনার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করতে উদ্যোগী হল মহারাষ্ট্র সরকার।

শিবসেনার দুই বিধায়ক সুনীল প্রভু এবং প্রতাপ সরনায়েক অধ্যয়নের ওই পুরনো ভিডিয়োটি তুলে এনেছেন। বিষয়টি নিয়ে কঙ্গনার বিরুদ্ধে তদন্ত হওয়া প্রয়োজন বলে সোমবার রাজ্য বিধানসভায় প্রস্তাব আনেন তাঁরা। তাঁদের দাবি, কঙ্গনা যেমন একাধিক বলি-তারকাদের বিরুদ্ধে মাদক সেবনের অভিযোগ আনছেন, তেমনই অনেকে আবার ওঁর বিরুদ্ধেই পাল্টা অভিযোগ তুলছেন। তাই বিষয়টি খতিয়ে দেখা প্রয়োজন। কঙ্গনার জন্য মুম্বইয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তাঁরা।

তাতেই নডে়চড়ে বসেছে মহারাষ্ট্র সরকার। সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ দিন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ বলেন, ‘‘বিধায়ক সুনীল প্রভু এবং প্রতাপ সরনায়েকের অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিধানসভায় আমি জানিয়েছি, অধ্যয়ন সুমনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল কঙ্গনার। একটি সাক্ষাৎকারে তিনিই জানিয়েছিলেন যে, কঙ্গনা নিজে মাদক সেবন করতেন এবং তাঁকেও বাধ্য করতেন। মুম্বই পুলিশ অভিযোগটি খতিয়ে দেখবে।’’

তবে কঙ্গনার দাবি, মুম্বই পুলিশ যদি তাঁর সঙ্গে মাদক যোগ প্রমাণ করতে পারে, তাহলে মু্ম্বই ছেড়ে চলে যাবেন তিনি। এ দিন টুইটারে কঙ্গনা লেখেন, ‘‘মুম্বই পুলিশ এবং অনিল দেশমুখের নির্দেশ মেনে নেব আমি। আমার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হোক। খতিয়ে দেখা হোক কল রেকর্ডসও। তাতে যদি কোনও মাদক পাচারকারীর সঙ্গে আমার সংযোগ রয়েছে বলে ধরা পড়ে, তাহলে ভুল স্বীকার করে নেব আমি। চিরকালের মতো মুম্বই ছেড়ে চলে যাব। আপনাদের সঙ্গে দেখা করার জন্য মুখিয়ে রয়েছি।’’

কঙ্গনার টুইট।

আরও পড়ুন: সুশান্ত মামলায় গ্রেফতার রিয়া চক্রবর্তী, ধরা হল মাদক-যোগে​

আরও পড়ুন: দিশা সালিয়ানের মৃত্যুর পরেই সুশান্ত কেন নষ্ট করেন হার্ড ডিস্ক, ফোন করেন আইনজীবীকে?​

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে মুম্বই পুলিশের ভূমিকা নিয়ে শুরু থেকেই প্রশ্ন তুলে আসছেন কঙ্গনা। সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের শিবসেনা-এনসিপি এবং কংগ্রেসের জোট সরকারের বিরুদ্ধেও তোপ দাগতে শুরু করেন তিনি। মহা আঘাডি জোট সরকারের আমলে মুম্বই পাক অধিকৃত কাশ্মীরে পরিণত হয়েছে এবং সেখানে থাকতে তিনি ভয় পাচ্ছেন বলেও সম্প্রতি মন্তব্য করেন কঙ্গনা।

বিজেপি ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত কঙ্গনার এই মন্তব্যের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন শিবসেনা এবং এনসিপি নেতৃত্ব। তা নিয়ে গত কয়েক দিন ধরেই দু’পক্ষের মধ্যে টানাপড়েন চলছে। তার মধ্যেই অধ্যয়নের পুরনো সাক্ষাৎকারকে হাতিয়ার করে কঙ্গনার মাদক যোগ নিয়ে তদন্ত শুরু হল।  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন