Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

অনস্ক্রিন কাপল হিসেবে এঁদের ভাবতে পারেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৯ জানুয়ারি ২০১৮ ১৫:৪২
বলিউডে পরিচালক ও প্রযোজকের মতোই গুরুত্ব রয়েছে কাস্টিং ডিরেক্টরের। অর্থাত্, যাঁরা ছবিতে অভিনেতা কে হবেন, তা বাছাই করেন। অনস্ক্রিনে হিরো-হিরোইনের কেমিস্ট্রি না জমলে ফিল্ম জমে না। বলিউডের কোনও কোনও ছবি জুটির জন্যই হিট করে যায়। আবার কিছু ছবির সব ভাল হয়েও, জুটির কেমিস্ট্রি না থাকায় মনে দাগ কাটে না। গ্যালারির পাতায় বলিউডের কিছু ‘মিসম্যাচড’ জুটি। যদিও দর্শকদের দ্বিমত থাকতেই পারে।

‘রোবট’ ছবিতে রজনীকান্তের গার্লফ্রেন্ড ও পরে স্ত্রীর ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল ঐশ্বর্যা রাই বচ্চনকে। কী হত যদি, ঐশ্বর্যার জায়গায় অভিনয় করতেন রেখা বা হেমা মালিনী?এই একটি ছবিতেই এক সঙ্গে কাজ করেছেন রজনীকান্ত ও ঐশ্বর্যা। জুটি অন-স্ক্রিনে হিট না করার জেরেই হয়তো ছবির পরের পার্ট ‘টু পয়েন্ট ও’-তে ঐশ্বর্যা বাদ পড়েছেন।
Advertisement
২০০৮-এ ‘কিসমত কানেকশন’ নামে একটি ছবি মুক্তি পেয়েছিল। চকোলেট বয় শাহিদ কপূরের বিপরীতে বিদ্যা বালন। এই ছবি যতটা ফ্লপ হয়েছিল, তার চেয়ে অনেক বেশি ফ্লপ ছিল অনস্ক্রিন কাপলের কেমিস্ট্রি। এ কারণেই হয়তো আর তাঁদেরকে কোনও ছবিতে এক সঙ্গে কাজ করতে দেখা যায়নি।

‘ওয়েক আপ সিদ’ বলিউডের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় ছবি। তবে অনস্ক্রিন কাপল হিসেবে দেখানো হয়েছিল রণবীর কপূর ও কঙ্কনা সেন শর্মাকে। ছবির গল্প অনুযায়ী বন্ধুত্ব এমন দু’জনের মধ্যে যাঁদের মানসিকতা একেবারেই আলাদা। অভিনয় নজর কাড়লেও, জুটির কেমিস্ট্রি দর্শকদের পছন্দ হয়নি বলেই হয়তো এখনও দ্বিতীয় ছবিতে তাঁদের এক সঙ্গে দেখা যায়নি।
Advertisement
২০০৯ সালে শাহিদ কপূরের সঙ্গে জুটি বেঁধে রানি মুখোপাধ্যায়ও একটি ছবি করেছিলেন। ছবির নাম ‘দিল বোলে হাড়িপ্পা’। অনস্ক্রিন কাপল হিসেবে এই জুটিও একেবারেই অসফল। দর্শকদের মনে দাগ না কাটার জেরেই হয়তো এখনও স্ক্রিনে এক সঙ্গে দেখা যায়নি তাঁদের।

বয়সের কথা যে মাঝে মাঝেই বলিউডের কাস্টিং ডিরেক্টররা ভুলে যান, তার প্রমাণ এই জুটি। ২০১১-তে ‘থ্যাঙ্ক ইউ’ নামের একটি ছবিতে জুটি বেঁধেছিলেন অক্ষয় কুমার ও সোনম কপূর। ছবিতে তাঁদের কোনও কেমিস্ট্রি ছিল না বললে ভুল বলা হবে না।