• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কর্ণদের পার্টি নিয়ে তদন্ত নয়, জানাল এনসিবি 

KJO
কর্ণ জোহর

কর্ণ জোহরের বাড়িতে হওয়া ‘মাদক পার্টি’ নিয়ে তারা কোনও তদন্ত করছে না বলে জানিয়েছে নার্কোটিক্স কন্ট্রোল বুরো (এনসিবি)। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাটির তরফে জানানো হয়েছে, সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুতে মাদক যোগ নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছে তারা। সাংবাদিক বৈঠকে এনসিবি-র মুখপাত্র বলেন, ‘‘ওই ভিডিয়োর সঙ্গে সুশান্তের মৃত্যুর কোনও যোগ নেই।’’

২০১৯-এর ২৮ জুলাই কর্ণ জোহরের বাড়ির ওই পার্টিতে ছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন, ভিকি কৌশল, রণবীর কপূরের মতো বলিউডের তারকারা। কাল দীপিকাকে তলব এবং ধর্মা প্রোডাকশন্সের প্রাক্তন কার্যনির্বাহী প্রযোজক ক্ষিতিজ রবি প্রসাদকে গ্রেফতার করার পরে জল্পনা হচ্ছিল, এ বার কি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হবে কর্ণ জোহরকে? কারণ ওই পার্টির ভিডিয়ো দেখিয়েই ক্ষিতিজকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন গোয়েন্দারা। কর্ণ জোহরের ওই পার্টিতে মাদক যোগ নিয়ে তদন্তের দাবি তুলেছিলেন শিরোমণি অকালি দলের বিধায়ক মনজিন্দর সিংহ সিরসাও। 

কালই জিজ্ঞাসাবাদের পরে দীপিকা, শ্রদ্ধা কপূর ও সারা আলি খানের ফোন বাজেয়াপ্ত করেছিল এনসিবি। আজ এনসিবি সূত্রে জানা গিয়েছে, আইন মেনেই সেই ফোনগুলি থেকে তথ্য বার করবেন গোয়েন্দারা। খুঁজে বার করা হবে ‘ডিলিট’ করা চ্যাটও। সেই সব চ্যাট থেকে বলিউডের অন্য কারও নাম উঠে আসে কি না, জানতে আগ্রহী গোয়েন্দারা। এ দিন ক্ষিতিজকে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত এনসিবি-র হেফাজতে পাঠিয়েছে মুম্বইয়ের একটি আদালত।

কাল দীপিকা পাড়ুকোনের গাড়ি তাড়া করছে একটি সংবাদ চ্যানেলের গাড়ি, এই ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পরে সাংবাদিকদের সতর্ক করে দিয়েছে মুম্বই পুলিশ। মুম্বই জ়োন ওয়ান পুলিশের ডেপুটি কমিশনার সংগ্রামসিংহ নিশান্দার বলেন, ‘‘এনসিবি যাঁদের ডাকছে, তাঁদের গাড়ি যে ভাবে তাড়া করছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের গাড়ি, তা সত্যিই উদ্বেগজনক। যে কোনও মুহূর্তে বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে, গাড়ির চালক বা পথচারী, যে কেউ-ই আহত হতে পারেন। ভবিষ্যতে এ রকম কিছু ঘটলে, আমরা গাড়ি বাজেয়াপ্ত করব ও চালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’’

আরও পড়ুন: ‘মুম্বইয়ের জন্য শুধুই ভালবাসা’

রিয়া চক্রবর্তীকে অভিযুক্ত করে যে মাদক মামলা চালাচ্ছে নার্কোটিক্স কন্ট্রোল বুরো (এনসিবি), তাতে যেন তাঁর নাম না-জড়ায় সংবাদমাধ্যম। আজ এই আর্জি জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন জানালেন অভিনেত্রী রকুল প্রীত সিংহ। আবেদনে রকুল জানিয়েছেন, এনসিবি যত দিন পর্যন্ত রিপোর্ট পেশ না-করছে, তত দিন যেন তাঁকে এই মামলায় জড়িয়ে কোনও খবর প্রকাশ না হয়। এই মর্মে কেন্দ্র, প্রেস কাউন্সিল অব ইন্ডিয়া এবং নিউজ় ব্রডকাস্টার্স অ্যাসোসিয়েশনকে নির্দেশ দিক আদালত, আবেদনে জানিয়েছেন রকুল। আগামী সপ্তাহে এই আবেদনের শুনানি। 

আরও পড়ুন: খুলছে সিনেমা হল, থাকছে সংশয়, উদ্বেগও

রকুল তাঁর আবেদনে জানিয়েছেন, ২২ সেপ্টেম্বর তিনি হায়দরাবাদে ছিলেন। হঠাৎ টিভিতে দেখেন, বিভিন্ন খবরে চ্যানেল বলছে, ২৩ সেপ্টেম্বর তাঁকে মুম্বইয়ে ডেকেছে এনসিবি। তখনও পর্যন্ত হায়দরাবাদ বা মুম্বইয়ের বাড়িতে এনসিবি-র কোনও সমন আসেনি বলে দাবি রকুলের। তাঁর আরও দাবি, সে দিন সন্ধেবেলাই তিনি মুম্বইয়ে পৌঁছে গিয়েছেন, এমন ‘খবর’ও দেখানো হচ্ছিল বিভিন্ন চ্যানেলে। আসলে তখন তিনি হায়দরাবাদেই ছিলেন। পরের দিন, অর্থাৎ ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে, হোয়াটসঅ্যাপে তাঁকে সমন পাঠায় এনসিবি, যেটি পেয়ে সে দিনই মুম্বই চলে আসেন অভিনেত্রী এবং পরের দিন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার গোয়েন্দাদের সামনে তাঁর বয়ান রেকর্ড করেন।   

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন