Advertisement
২৫ জুলাই ২০২৪
Indrasish Roy

Dhulokona: এই প্রথম ধারাবাহিকে কেন্দ্রীয় চরিত্র গাড়ি, ধুলোকণা মেখে আসছে নতুন জুটি

সাংবাদিক বৈঠকে লীনার আগাম আশ্বাস, ‘‘চাইলে ধুলোকণাও যে সোনার কণা হয়ে উঠতে পারে সেটাই দেখাবে ধারাবাহিক।’’

‘ধুলোকণা’ ধারাবাহিক

‘ধুলোকণা’ ধারাবাহিক

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ জুলাই ২০২১ ২০:৩২
Share: Save:

উচ্চ মধ্যবিত্ত থেকে মধ্যবিত্ত হয়ে অতি সাধারণ, সমাজের এই স্তরগুলো হাতের তালুর মতো চেনেন লীনা গঙ্গোপাধ্যায়। প্রযোজক-পরিচালক-লেখক-চিত্রনাট্যকার মানব সম্পর্কের নানা স্তর নিয়েও পরীক্ষা করতে ভালবাসেন তিনি। তার উদাহরণ, অতীতের জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘জলনূপুর’, ‘ইষ্টিকুটুম’। সাম্প্রতিক, ‘শ্রীময়ী’, ‘খড়কুটো’, ‘দেশের মাটি’।

১৯ জুলাই থেকে আরও এক বার সেই পথে হেঁটে স্টার জলসায় তিনি ছড়িয়ে দিতে চলেছেন ‘ধুলোকণা’। আরেক প্রযোজক-পরিচালক শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রযোজনা সংস্থা ম্যাজিক মোমেন্টসের হাত ধরে এই ধারাবাহিক শুরু হবে। বৃহস্পতিবার দুপুরে নেটমাধ্যমে সাংবাদিক বৈঠকে লীনার আগাম আশ্বাস, ‘‘চাইলে ধুলোকণাও যে সোনার কণা হয়ে উঠতে পারে সেটাই দেখাবে ধারাবাহিক।’’

এই ধারাবাহিকের বাকি বৈশিষ্ট্যের কথা আগাম জানিয়েছিল আনন্দবাজার অনলাইন। ম্যাজিক মোমেন্টস ৪ বছর পরে ছোট পর্দায় ফেরাচ্ছে অভিনেতা ইন্দ্রাশিস রায়কে। যাঁর বিপরীতে প্রথম জুটি বাঁধছেন মানালি দে। পর্দায় ইন্দ্রাশিস ‘লালন’, মানালি ‘ফুলঝুরি’। অভিনেতার দাবি, সহ-অভিনেতা হিসেবে তাঁর আর মানালির বন্ধুত্ব দীর্ঘ দিনের। সেই বন্ধুত্বকেই পর্দায় ‘জুটি’ হিসেবে দেখবেন দর্শক। ইতিমধ্যেই ৮ দিন এক সঙ্গে কাজ করে ফেলেছেন তাঁরা। ইন্দ্রাশিসের আশা, লীনা গঙ্গোপাধ্যায় সৃষ্ট বাকি জুটিদের মতোই এই জুটিকেও দর্শকেরা ভালবেসে ফেলবেন নিজে থেকেই।

ইন্দ্রাশিসের ছাড়াও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মানালি, ঋতা দত্ত চক্রবর্তী, বাদশা মৈত্র, মৈনাক বন্দ্যোপাধ্যায়। মানালি অকপটে জানিয়েছেন, সরাসরি বস্তিতে গিয়ে শ্যুট হচ্ছে। ফলে, চাপ রয়েছে। রাত ৮টার পরে সেটে থাকার নির্দেশ নেই। তার পরেও তিনি ক্লান্ত হচ্ছেন না! ঋতার দাবি, বস্তির ঘর কেমন হয় জানা ছিল না তাঁর। বস্তির গলি কতটা সরু হয়, সেখানকার ঘরের মেঝে কতটা ধুলোবালিমাখা হয়, বাড়ির ছাদ কতটা নীচু হয়? সবটাই জানলেন লীনার মাধ্যমে।পর্দায় তিনি ‘লালন’ ওরফে ইন্দ্রাশিসের মা।

মানালি দে ও ইন্দ্রাশিস রায়

মানালি দে ও ইন্দ্রাশিস রায়

বাদশার দাবি, তিনি অন্তত এমন কোনও পরিবার দেখেননি যেখানে গাড়িকে মশারি খাটিয়ে রাখা হয়! তিনি বললেন, ‘‘লীনাদির সঙ্গে কাজ করার সুবিধে, নিত্যনতুন চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পাওয়া। আমি নতুন পরিবারের ছোট ছেলে বুলেট। ‘খড়কুটো’ ধারাবাহিকের সুকল্যাণের থেকে একদম আলাদা। বাকিদের মতোই নতুন গাড়ি নিয়ে আমার উল্লাসও কম নয়, প্রোমোই তার প্রমাণ।’’

ছোট পর্দায় সম্ভবত এই প্রথম কেন্দ্রীয় চরিত্র গাড়ি! এই গাড়ির মালিক মৈনাক। একান্নবর্তী সংসারে নতুন গাড়ি এসেছে। কী ভাবে তার যত্নআত্তি করা হবে? এই ভাবতে ভাবতেই হিমশিম খেয়েছেন পরিবারের সবাই। মৈনাকের দাবি, ‘‘যেহেতু আমার গাড়ি তাই তার প্রতি আমি বেশি দুর্বল। বাড়িতে গ্যারাজ নেই। ফলে, ধুলোবালি থেকে ঝাঁ চকচকে নতুন গাড়িকে বাঁচাতে মশারি টাঙানোর ব্যবস্থা!’’ এই গাড়িরই চালক হিসাবে বাড়িতে উপস্থিত ‘লালন’ ওরফে ‘লাল’। র্যাপ গায়ক হিসাবে যার বেশ নামডাক। লালনকে নিয়ে বাড়ির সবাই যখন বেশ উত্তেজিত, তখনই আসরে ফুলঝুরি। বাড়ির সদস্যদের কথায়, সে বাড়ির পরিচারিকা কম কর্ত্রী বেশি। ‘ফুলঝুরি’ হতে গিয়ে কথা বলার ভঙ্গি বদলাতে হয়েছে মানালিকে, বৈঠকে ফাঁস করেছেন অভিনেত্রী।

শৈবাল জানালেন, ধারাবাহিক শুরুই হবে বড় চমক দিয়ে। সেই অংশের শ্যুটিং করতে গিয়ে টিম ‘ধুলোকণা’-কে বহু প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হয়েছে। লালনের কণ্ঠে একাধিক বাংলা র্যাপ শুনতে পাবেন দর্শক-শ্রোতা। আপাতত গানের অংশে ইন্দ্রাশিসের কণ্ঠ ব্যবহার করা হচ্ছে। আগামী দিনে অবশ্যই কোনও নামী বাঙালি র্যাপারের গলা শুনতে পাবেন দর্শক।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Mega Serial Manali Dey Indrasish Roy
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE