• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফেসবুকের মাধ্যমেই প্রথম লিড রোলে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন ‘তিতলি’

main
তিতলির বাবার চরিত্রে শঙ্কর চক্রবর্তী, এক্সক্লুসিভ লুক শেয়ার শুধুমাত্র আনন্দবাজার ডিজিটালে।

ছুঁতে চেয়েছিলেন আকাশ। স্বপ্ন দেখেছিলেন নায়িকা হওয়ার। ফেসবুক থেকেই যে তাঁর সেই স্বপ্ন উড়াল নেবে তাকি আদপে কল্পনা করতে পেরেছিলেন মধুপ্রিয়া চৌধুরী?

স্টার জলসায় সোমবার থেকে শুরু হল ধারাবাহিক ‘তিতলি’। আর এই ধারাবাহিকেরই কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা যাবে মধুপ্রিয়াকে। বাস্তবিক জীবনেও ‘তিতলি’র সঙ্গে যেন বড় বেশি মিল রয়েছে ইন্ডাস্ট্রিতে সদ্য পা রাখা মধুপ্রিয়ার।

তিতলি চায় পাইলট হতে। আর মধুপ্রিয়া চেয়েছিলেন নায়িকা হতে। তিতলির জীবনে অভিশাপ হয়ে এসেছিল তার শ্রবণশক্তি হারানোর ঘটনা। মধুপ্রিয়ার জীবনে আশীর্বাদ হয়ে এসেছিল ‘ফেসবুক’। হ্যাঁ, ঠিক শুনেছেন। ফেসবুকে বন্ধুর প্রোফাইলে তাঁর ছবি প্রথম বার দেখেই চ্যানেল কর্তৃপক্ষের মনে ধরেছিল মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়েটিকে।

তারপর? ইতিহাস...

রীতিমতো অভিনয়ের পরীক্ষায় পাশ করার পর ব্রেক মিলল ‘তিতলি’-তে। আর প্রথম ব্রেকেই বাজিমাৎ। একেবারে লিড রোলে। মধুপ্রিয়া হেসে বলছিলেন, “বাবা-মা খুব খুশি হয়েছে জানেন, আমার তো এখনও বিশ্বাসই হচ্ছে না।”

তবে চ্যালেঞ্জ বেড়েছে নিঃসন্দেহে। ধারাবাহিকের প্রতিযোগিতায় একেবারে অন্য রকম একটিপ্লট। ছোটবেলায় এক প্লেন ক্র্যাশের আওয়াজে নষ্ট হয়ে যায় তিতলির শ্রবণশক্তি। ওই দুর্ঘটনার পর থেকে আচমকাই পাল্টে যেতে থাকে তাঁর জীবনের চেনা ছন্দ। মা’মরা মেয়ে’, স্বপ্ন দেখতে থাকে পাইলট হবে সে। কিন্তু সে যে শুনতে পায় না। তা হলে? ইচ্ছেপূরণ হবে তাঁর? কী ভাবে? আকাশ ছুঁতে পারবে ‘তিতলি’? ‘তিতলি’ হয়ে দর্শকের মনে জায়গা করে নিতে পারবেন মধুপ্রিয়া? মধুপ্রিয়া আত্মবিশাসী। করোনাকে পাশ কাটিয়েই জোরকদমে শুটিং করছেন মধুপ্রিয়া। আত্মবিশ্বাসী গোটা টিম।

মধুপ্রিয়ার বিপরীতে থাকছেন আরিয়ান ভৌমিক। বড় পর্দা ছেড়ে হঠাৎ ছোট পর্দায় ফিরলেন কেন তিনি, সে প্রশ্ন করতেই কিছুটা যেন এড়িয়ে গেলেন অভিনেতা? তিনি কি তিতলির বয়ফ্রেন্ড? শোনা যাচ্ছে, বয়ফ্রেন্ড কি না তা এখনই নির্দিষ্ট ভাবে বলা না গেলেও শুভানুধ্যায়ী তো বটেই। তিতলির বাবার চরিত্রে দেখা যাবে অভিনেতা শঙ্কর চক্রবর্তীকে।

ধারাবাহিকটির প্রযোজক সুশান্ত দাস। পরিচালনায় থাকছেন শুভ্রজ্যোতি মাইতি, সুমন্ত চক্রবর্তী। চিত্রনাট্য লিখেছেন সুশান্ত দাস, নন্দলাল মজুমদার এবং সায়ন্তনী ভট্টাচার্য। একবুক আকাশ ছোঁয়ার ইচ্ছে নিয়ে স্টার জলসায় সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বাঙালির বৈঠকখানায় পা রাখল ‘তিতলি’।

 

 

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন