Advertisement
১৩ জুন ২০২৪
Karan Johar

Kajol- Karan: এত ধমক কিসের, সবার সামনেই কর্ণকে পাল্টা তিরস্কার কাজলের, তার পর?

বয়স বাড়ে, সময় বয়ে যায়। কিন্তু বন্ধুত্বের রসায়ন অম্ল-মধুর, সে তো বদলানোর নয়!

ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ২৬ মে ২০২২ ২৩:২৫
Share: Save:

তারকাদেরও তো বয়স বাড়ে! কাজলের সঙ্গে কর্ণ জোহরের বন্ধুত্বেরও কয়েক দশক হতে চলল। ঝগড়া-খুনসুটি এখনও প্রায় আগেরই মতো। তবে দু'জনেই এখন পরিণতির মধ্যগগনে। আগে যেমন অবুঝের মতো ঝগড়া করতেন, তেমনটা আর করেন না কাজল-কর্ণ। সে কথা বলতে বলতেই হাসছিলেন 'অঞ্জলি', তাঁর পরিচালকের জন্মদিনে এসে।

কর্ণ জোহরের ৫০তম জন্মদিনের পার্টিতে প্রায় গোটা বলিউড এক হয়েছিল যশ রাজ স্টুডিয়োতে। কত গল্প, কত স্মৃতির ভিড়ে জমে উঠেছিল বুধবারের সন্ধে। শাহরুখ খান, কাজল থেকে শুরু করে মাধুরী দীক্ষিতের পুত্র- দুই প্রজন্ম মিলেমিশে একাকার। সেখানেই কথা উঠল নব্বইয়ের দশকের হিট ছবি 'কুছ কুছ হোতা হ্যায়' নিয়ে। কর্ণের সেই ছবিতে কাজল যা করেছিলেন, তা নিয়ে আজও তিনি লজ্জিত।

'কুছ কুছ হোতা হ্যায়'-এর শ্যুটিং চলছে তখন। বাস্কেট বল কোর্টের দৃশ্যে কাজলের জুতোর ফিতে খুলে গিয়েছিল। শরীরটাও ভাল ছিল না নায়িকার। এ দিকে পরিচালক কর্ণ জোহর তাড়া দিচ্ছেন, "আরে, তাড়াতাড়ি ফিতেটা বাঁধ। ওই ভাবে বাঁধছ কেন?" বলতেই থাকেন। আর কাজলও তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে গিঁট পাকিয়ে ফেলেন ফিতেয়। তাতে কর্ণ আরও একটু উষ্মা দেখান। আর তাতেই খেপে যান 'অঞ্জলি'! গর্জে উঠে বলেন, "একদম চুপ!"

সেই ধমকে ঘাবড়ে গিয়েছিলেন কর্ণ। পরে কাজলের মাথা ঠান্ডা হলে তিনিও অনুশোচনায়, লজ্জায় মরমে মরছিলেন। যতই বন্ধু হোন কর্ণ, পরিচালক যে! তিনিই তো ছবির সেটে দণ্ডমুণ্ডের কর্তা! সবার সামনে তাঁকে এমন ভাবে বলা ঠিক হয়নি ভেবে কাজল টানা ১০ মিনিট ধরে ক্ষমা চান এর পর।

কর্ণ তখন আরওই অপ্রস্তুত। কাজলের খারাপ লেগেছে দেখে তাঁকেও এ বার ক্ষমা চাইতে হল। সেই নাটকীয় দৃশ্য ছবির অংশ না হলেও আজও মনে রেখেছেন দু'জনেই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE