বহু বিতর্ক, বহু বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে গত ২৫ জানুয়ারি বিজেপি শাসিত চার রাজ্য রাজস্থান, হরিয়ানা, গুজরাত, মধ্যপ্রদেশ বাদে গোটা ভারতে মুক্তি পেয়েছে সঞ্জয় লীলা ভন্সালীর ছবি ‘পদ্মাবত’। এ বার বাধা-বিপত্তির আঁচ গিয়ে পড়ল মালয়েশিয়াতে।

মালয়েশিয়ায় ‘পদ্মাবত’ মুক্তির পথে বাধা হয়ে দাঁড়াল সেন্সর বোর্ড। সে দেশের সেন্সর কর্তাদের মত, এই ছবি ‘ইসলামের জন্য স্পর্শকাতর’।

মালয়েশিয়ার ফিল্ম সেন্সরশিপ বোর্ডের চেয়ারম্যান জামবেরি আবদুল আজিজ বলেন, ‘‘এই ছবির গল্প যে ভাবে এগিয়েছে তা ইসলামের ভাবাবেগে আঘাত করেছে। মালয়েশিয়া মুসলিম অধ্যুষিত দেশ। তাই এই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখা হয়েছে।’’

আরও পড়ুন, মুভি রিভিউ: আরও একটা ‘বিগ বাজেট’, আরও একটা ‘ম্যাগনাম ওপাস’

যদিও দিন কয়েক আগেই কোনও রকম ‘কাট’ ছাড়াই এই বিতর্কিত ছবিকে মুক্তির ছাড়পত্র দিয়েছে পাক সেন্সর বোর্ড। পাক সেন্সর বোর্ডের চেয়ারম্যান মোবাশির হাসান টুইট করেন, ‘ভারতীয় শিল্পীদের নিয়ে তৈরি হওয়া ‘পদ্মাবত’কে কোনও কাট ছাড়াই মুক্তির সুপারিশ করল সেন্সর বোর্ড। ছবিটিকে ‘ইউ’ সার্টিফিকেট দেওয়া হল। শিল্প, সৃজনশীলতা এবং সুস্থ বিনোদনের প্রতি সেন্সর বোর্ড পক্ষপাতদুষ্ট নয়।’

আরও পড়ুন, পদ্মাবত বনাম স্বরা: পুরুষতান্ত্রিক মুখ কি বেরিয়ে আসছে বলিউডের

তবে ভারতে প্রথমে এই ছবির ২৬টি কাটের নির্দেশ দিয়েছিল সেন্সর বোর্ড। কিন্তু সেন্সর বোর্ডের প্রধান প্রসূন যোশী জানিয়েছিলেন, মোট পাঁচটি কাটের সুপারিশ করে সেন্সর বোর্ড। করণী সেনার বহু বাধার পরেও চারটি রাজ্য বাদে ভারতে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। কিন্তু মালয়েশিয়ায় আপাতত মুক্তি বন্ধ।  

বলিউড-টলিউড-টেলিউডের হিট খবর জানতে চান? সাপ্তাহিক বিনোদন সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন