পহেলাজ নিহালনি। প্রাক্তন সেন্সর কর্তা বলি ইন্ডাস্ট্রির বর্ণময় চরিত্র। কাজে এবং কথায় যাঁর বেশিরভাগটাই অমিল বলে মনে করেন তাঁর সহকর্মীরা। বেশ কিছু অভিযোগও উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। যার মধ্যে সর্বশেষ হল কঙ্গনা রানাউতের করা অভিযোগ।

কঙ্গনা অভিযোগ করেছেন, তাঁর কেরিয়ারের শুরুর দিকে পহেলাজ নাকি একটি ছবি অফার করেছিলেন। তার জন্য কোনও অন্তর্বাস ছাড়া সিল্কের পোশাক পরে ফোটোশুট করার জন্য জোর করেছিলেন। অপ্রস্তুত হলেও সেই ফোটোশুট করতে নাকি বাধ্য হয়েছিলেন নায়িকা। তবে পরে ছবিটি আর করেননি। এই দাবির ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই কঙ্গনাকে আক্রমণ করেছেন পহেলাজ।

সূত্রের খবর, পহেলাজ দাবি করেছেন, তাঁর ছবির জন্য করা ফোটোশুট কঙ্গনা কাজে লাগিয়েছেন। ওই ছবি দিয়ে তৈরি পোস্টার দেখেই নাকি ‘গ্যাংস্টার’-এর অফার পেয়েছিলেন নায়িকা। ২০০৬-এ ওই ছবির মাধ্যমেই বলিউডে ডেবিউ করেছিলেন তিনি। এমনকি পহেলাজ যাতে মহেশ ভট্টের ছবিতে তাঁকে সুযোগ করিয়ে দেন, এমন অনুরোধও কঙ্গনা করেছিলেন বলে দাবি করেছেন প্রাক্তন সেন্সর কর্তা।

দেখুন, বিনোদনের নানা কুইজ

কঙ্গনা দাবি করেছিলেন, ‘‘আই লভ ইউ বস নামের একটা ছবি করার অফার করেছিলেন পহেলাজ। মধ্যবয়সী বসের সঙ্গে যুবতী একটি মেয়ের সম্পর্কের গল্প। ফোটোশুটে একটা সিল্কের পোশাক দিয়েছিলেন। কোনও অন্তর্বাস ছাড়া সেটা পরে ফোটো তুলতে হয়েছিল। কিন্তু গল্পটা সফট পর্ন মনে হয়েছিল। তাই কাজটা করিনি।’’

আরও পড়ুন, বিশেষ মানুষ, ভালবাসি… রণবীরকে প্রকাশ্যে বললেন আলিয়া

এর পাল্টা পহেলাজ বলেন, “ওটা কোনও সফট পর্ন ছবি ছিল না। এ ধরনের ছবিতে আমার কোনও আগ্রহ নেই।”

কঙ্গনা-পহেলাজের মৌখিক বিরোধ এখানেই শেষ হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন না বলি ইন্ডাস্ট্রির একটা বড় অংশ। আরও কোনও গোপন সত্যি বেরিয়ে আসতে পারে বলেও মনে করছেন তাঁরা।

(হলিউড, বলিউড বা টলিউড - টিনসেল টাউনের সমস্ত গসিপ পড়তে চোখ রাখুন আমাদের বিনোদন বিভাগে।)