• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দীপিকার কোন বিষয়কে ভয় পান? রণবীর বললেন…

Ranveer-Deepika
রণবীর-দীপিকা

এমনিতে রণবীর সিংহ সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ অ্যাক্টিভ। তবে লকডাউনের পর থেকে অনেক চুপচাপ হয়ে গিয়েছেন। কিন্তু কেন? ইনস্টাগ্রাম লাইভে সে সবের জবাব দিলেন তারকা। ‘‘চারপাশে এত খারাপ কিছু ঘটছে যে, একটু থমকে গিয়েছি। নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। এখন অনেকটা ঠিক হয়েছি। সব মন্দেরই ভাল থাকে, সেই ভাল দিকটা নিয়ে থাকতে চাই,’’ মত রণবীরের।

ফুটবলার সুনীল ছেত্রীর সঙ্গে লাইভ চ্যাট করেন রণবীর। সেই ইনস্টা-চ্যাটে ভক্তরা রণবীরকে মন খুলে প্রশ্ন করেছেন। অভিনেতাও ভক্তদের সন্তুষ্ট করেছেন সাধ্য মতো। একজন জানতে চেয়েছিলেন, তাঁর জীবনে দীপিকার প্রভাব কতটা? ‘‘ও আমাকে গাইড করে। শি ইজ় দ্য পিলার ফর মি। দীপিকা না থাকলে আমি হয়তো এই জায়গাটায় পৌঁছতে পারতাম না। আর পৌঁছলেও জায়গা ধরে রাখার যে চাপটা আমাদের মতো তারকাদের ক্রমাগত নিতে হয়, সেটা দীপিকার জন্যই নিতে পেরেছি,’’ স্ত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ রণবীর।

অভিনেতা যখন কোনও চরিত্র ফুটিয়ে তোলেন, তখন সেটির মধ্যে তিনি ঢুকে যান। চরিত্রের প্রয়োজনে যা খুশি করতে পারেন রণবীর। আর তাঁর এই দিকটাই ভয় পান দীপিকা। ‘‘ও আমাকে সাবধান করে। ভয় পায়, আমি যেন নিজের কোনও ক্ষতি না করে ফেলি। একটা চরিত্রের জন্য আমি শরীর, মন সব কিছু উজাড় করে দিই। সেটা করতে গিয়ে নিজের ক্ষতিও করে ফেলেছি। তবে দীপিকার জন্যই আগের চেয়ে আমি অনেক শান্ত হয়েছি। অভিনয় নিয়ে ভাবনাচিন্তা করলেও নিজেকে কনট্রোল করতে পারি,’’ মন্তব্য রণবীরের।

আর দীপিকার কোন বিষয়কে তিনি ভয় পান? ‘‘ও যখন র্যাকেট হাতে কোর্টে নামে,’’ সহাস্য জবাব রণবীরের। খেলার মাঠে স্বামীকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়েন না স্ত্রী। রণবীর বলছিলেন, ‘‘আমি অনুরোধ করতাম, দু’-একটা পয়েন্ট যেন আমার মতো আনাড়ির জন্য ছেড়ে দেয়। কিন্তু শুনতই না। শি ইজ় রুথলেস ইন দ্য গেম। একবার তো আমি রেগে গিয়ে র্যাকেট আছড়ে ভাঙতে যাচ্ছিলাম। পরের মুহূর্তেই মনে পড়ে গিয়েছিল র্যাকেটটা আমার শ্বশুর (প্রকাশ পাড়ুকোন) দিয়েছেন!’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন