বিয়ের পর থেকেই বউমাকে বাঁকা চোখে দেখতেন শাশুড়ি। মনে হত, ছেলেকে তাঁর কাছ থেকে আলাদা করে নিচ্ছে বউমা। নাতনি হওয়ার পরও ঠাকুমার একই রকম মনে হত। নতুন বিয়ে হয়ে আসা মেয়েটা, মা হওয়ার পরও বদল এল না সংসারে। শাশুড়ি বিরুদ্ধে অভিযোগ, অভিমানের পাহাড় জমতে থাকে…।

এ গল্প তো আমার, আপনার চেনা। প্রতি বাড়িতেই হয়তো এ চিত্র রয়েছে। সেই চেনা গল্পকেই অচনা মোড়কে বড় পর্দায় নিয়ে আসছেন পরিচালক পৃথা চক্রবর্তী। সৌজন্যে আসন্ন ছবি ‘মুখার্জীদার বউ’। এ ছবির অচেনা মোড়কের নাম ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। যাঁর সান্নিধ্যে শাশুড়ি-বউয়ের চিরন্তন ঝামেলা মিটে যায়। সম্পর্কটা বদলে যায় বন্ধুত্বে…।

‘‘এই ছবিতে আমার চরিত্র সাইকোলজিস্টের। আরাত্রিকা। এক কথায় মেন্টর। অনেকটা ‘ডিয়ার জিন্দেগি’র শাহরুখ খানের মতো। দুটো মানুষের মধ্যে মেলবন্ধন ঘটাবে। সম্পর্ককে পজিটিভ দিকে নিয়ে যাবে। আরাত্রিকার নিজের জীবনেরও অনেক সমস্যা আছে। মেয়ে বলেই মেয়েদের সমস্যাটা আরও ভাল করে বুঝতে পারে। দুটো মানুষ যখন দিশেহারা হয়ে যায় তখন সমস্যাটা ধরিয়ে দেওয়ার জন্যও তৃতীয় ব্যক্তির দরকার হয়’’ শেয়ার করলেন ঋতুপর্ণা।

দেখুন, বিনোদনের নানা কুইজ

‘মুখার্জীদার বউ’-এ বিশেষ একটি চরিত্রে রয়েছেন ঋতুপর্ণা। এ ছাড়াও কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, অনসূয়া মজুমদার, বিশ্বনাথ বসু, অপরাজিতা আঢ্যর মতো শিল্পীর অভিনয়ে সমৃদ্ধ এই ছবি। মুক্তি পাবে আগামী ৮ মার্চ।

আরও পড়ুন, মা, বউয়ের সমস্যা কী ভাবে সামলান? ‘মুখার্জীদার বউ’-এর গল্প বললেন বিশ্বনাথ

(সিনেমার প্রথম ঝলক থেকে টাটকা ফিল্ম সমালোচনা - রুপোলি পর্দার বাছাই করা বাংলা খবর জানতে পড়ুন আমাদের বিনোদনের সব খবর বিভাগ।)