Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Bollywood: আইনি জটে ফাঁসলেন অমিতাভ-শাহরুখ থেকে অজয়-রণবীর, কিসে অভিযুক্ত তারকারা?

অমিতাভ-শাহরুখ থেকে অজয়-রণবীর— বলিউডের খ্যাতনামী চার তারকাই অভিযোগের আতসকাচে। জারি হল আইনি নোটিস। কী করেছেন তাঁরা?

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২০ মে ২০২২ ১৯:৫৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
আইনি বিপাকে বলিউডের চার তারকা।

আইনি বিপাকে বলিউডের চার তারকা।

Popup Close

ফের আইনি ফাঁস বলিউডে। তাতে আটকা পড়লেন চার-চার জন নামী তারকা। তালিকায় খোদ বলিউডের ‘শাহেনশা’ থেকে ‘বাদশা’ দু’জনেই!

অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, অজয় দেবগণ এবং রণবীর সিংহ। চার তারকা-অভিনেতার দিকে উঠেছে অভিযোগের আঙুল। বিহার হাই কোর্টে দায়ের হওয়া এক জনস্বার্থ মামলায় বলা হয়েছে, গুটখা এবং তামাকের প্রচার চালাচ্ছেন তাঁরা। চার তারকাই বিভিন্ন পানমশলার বিজ্ঞাপনে যুক্ত ছিলেন। সেই সূত্রেই এই মামলা।

বেশ কয়েক বছর তামাকজাত পণ্যের এক সংস্থার প্রচার-মুখ ছিলেন অজয়। একই সংস্থার বিজ্ঞাপনে গত বছর চুক্তিবদ্ধ হন কিং খানও। বিগ বি নিজেও এক পানমশলা ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনী-মুখ হিসেবে চুক্তি সই করেন। তবে পানমশলার প্রচার নিয়ে শোরগোল শুরু হওয়ার পরে সংস্থার সঙ্গে সংযোগ ছিন্ন করেছেন তিনি। একই সংস্থার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন রণবীরও।

Advertisement

মুজফ্‌ফরপুরের সিজেএম আদালতে চার তারকার বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন সমাজকর্মী তমান্না হাশমি। তাঁর অভিযোগ, তারকাদের করা এই বিজ্ঞাপন সাধারণ মানুষকে এই ক্ষতিকর পণ্যগুলির দিকে আরও আকৃষ্ট করছে। এ ক্ষেত্রে তারকা-পরিচিতি অপব্যবহারের অভিযোগে রণবীরের নাম আলাদা করে উল্লেখ করেছেন ওই সমাজকর্মী। তাঁর আবেদন, চার তারকের নামে এফআইআর করুক পুলিশ।

কিছু দিন আগেই জনরোষের মুখে পড়ে ক্ষমা চেয়ে এক পানমশলা ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন বলিউডের আর এক অভিনেতা অক্ষয় কুমার। একই পথে হাঁটেন ‘কেজিএফ’-তারকা যশ। ২০২১-এর অক্টোবরে তামাকজাত পণ্য ব্র্যান্ডের প্রচার-দূত অমিতাভও সরে এসেছিলেন চুক্তি থেকে। তার পরেও বিজ্ঞাপনী সম্প্রচারিত হতে থাকায় সংস্থাকে আইনি নোটিসও পাঠান তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement