• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শাহরুখ ভেবেছিলেন গৌরী আর বাঁচবেন না!

Shah Rukh Khan though his wife gauri would die
শাহরুখ খান এবং গৌরি খান।

সালটা ১৯৯১। এ রকমই এক ঝলমলে অক্টোবরে সাত পাকে বাঁধা পড়েন শাহরুখ ও গৌরী।  তারপর টানা ২৯ বছর ধরে ‘কাপল গোলস’ দিয়ে চলেছেন তাঁরা। এই দীর্ঘ দাম্পত্যে ঝড় ঝাপটা আসেনি? এসেছে বইকি! কখনও কাজল, কখনও প্রিয়ঙ্কা, একাধিক নায়িকার সঙ্গে জড়িয়েছে ‘কিং’-এর নাম।  তবুও শাহরুখ গৌরীর। দু’জনকে আলাদা করে এমন সাধ্য কার! 

পাশাপাশি একটা সময়ে গৌরীকে হারানোর ভয় জাঁকিয়ে বসেছিল শাহরুখের মনে।  কেন? উত্তর পেতে গেলে ফিরে যেতে হয় ১৯৯৭ সাল-এ। গৌরী তখন অন্তঃস্বত্ত্বা। ছেলে আরিয়ানের পৃথিবীতে আসার দিন গুণছে খান দম্পতি।  গৌরী ভর্তি হলেন হাসপাতালে। কিন্তু শাহরুখের মনে তখন অন্য চিন্তা। মুম্বই সংবাদমাধ্যমকে একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, “গৌরীকে চারপাশ থেকে টিউব দিয়ে মোড়ানো ছিল। ও তখন পাগলের মতো ছটফট করছে। কাঁপছে। আমি ওর সঙ্গে অপারেশন থিয়েটারের ভিতর গিয়েছিলাম। ভেবেছিলাম ও আর বাঁচবে না।”

শাহরুখ আরও যোগ করেন, “সেই সময় আমি আমার সন্তানের কথা ভাবিনি। সন্তান আমার কাছে তখন গুরুত্বপূর্ণ ছিল না। গৌরী সেই সময় ভীষণ কাঁপছে। আমি জানতাম সন্তান প্রসব করতে গিয়ে কারোর মৃত্যু হয় না। তবুও ভয় পেয়েছিলাম।” এরপর শাহরুখ-গৌরীর সংসারে এল তাঁদের প্রথম সন্তান। নায়কের কথায়, ছেলের বাহ্যিক গঠনে মা ও বাবা দু’জনের ছাপ স্পষ্ট। তবে হাবভাব নাকি পুরোটাই বাবার মতো।


আরও পড়ুন:বড় হয়ে তৈমুর একজন অভিনেতা হতে পারে, বললেন সইফ 

ভালবেসে ছেলের নাম রাখা হল আরিয়ান। শাহরুখ বলেন, “এই নাম রাখার পিছনে বিশেষ কোনও কারণ নেই। শুনতে ভাল লেগেছিল। মনে হয়েছিল যখন কোন মেয়েকে নিজের নাম বলবে, সে মুগ্ধ হবে এই নাম শুনে।” 

আরও পড়ুন:  সিরিয়াল পাড়ায় নায়িকা? ‘সাদা পরি’ হয়ে ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’য় ঋত্বিকা

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন