×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

মানুষের সঙ্গে ও ভাবে কথা বলার সাহস কী ভাবে হয়? ত্রিপুরার জেলাশাসককে প্রশ্ন সোনুর

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৯ এপ্রিল ২০২১ ১২:১৯
সোনু নিগম।

সোনু নিগম।

অতিমারিকালে অভিযান চালিয়ে ত্রিপুরার বড় মাপের একটি বিয়ের অনুষ্ঠান আটকান সেখানকার জেলাশাসক শৈলেশ যাদব। বিয়েবাড়িতে গিয়ে বর কনে থেকে অতিথি, রীতিমতো সকলকে ধমক দিয়ে বার করে দেন তিনি। পুরো ঘটনাটির ভিডিয়ো নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় বিতর্ক।

একটি ইনস্টাগ্রাম ভিডিয়োর মাধ্যমে পুরো বিষয়টি নিয়ে নিজের মতামত প্রকাশ করেছেন সোনু নিগম। সেই জেলাশাসককে সম্বোধন করে সোনু বলেছেন, যে কাজটি তিনি করেছেন, সেটি নিন্দনীয়। বিয়েবাড়িতে বর কনে এবং নিমন্ত্রিতদের আটক করার নির্দেশ দিয়েছিলেন শৈলেশ। এই নিয়ে কেউ তাঁর সঙ্গে কথা বলতে এলে কোভিড নিয়মবিধি ভাঙার জন্য গ্রেফতারেরও নির্দেশ দেন তিনি। শৈলেশের এই আচরণে ক্ষুব্ধ সোনু। প্রশ্ন তুলেছেন, “মানুষের সঙ্গে ও ভাবে কথা বলার সাহস কী ভাবে হয় আপনার?”। সোনুর মতে, সেই পরিবার কোভিড সুরক্ষাবিধি লঙ্ঘন করলেও, জেলাশাসক হিসেবে শৈলেশের উচিৎ ছিল মার্জিত আচরণ করে সেই ভুল ধরিয়ে দেওয়া। তাঁর কথায়, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীরও ক্ষমতার এত অহংকার নেই। তিনিও ভদ্র ভাবে মানুষের সঙ্গে কথা বলেন।” শৈলেশের আচরণকে কটাক্ষ করে তার পরেও নানা কথা বলেন সোনু।

মাণিক্য কোর্টে সেই বিয়ের অনুষ্ঠান আটকানোর পর বিতর্কের জল গড়ায় অনেক দূর। গত মঙ্গলবার শৈলেশ ক্ষমা চেয়ে বলেন কাউকে আঘাত দিতে এই কাজ করেননি তিনি। সাফাই দিয়ে জানান, মানুষের ভালর জন্য এবং কোভিড সুরক্ষাবিধি বজায় রাখতেই এই পদক্ষেপ করেছিলেন তিনি।

Advertisement
Advertisement