ঝামেলা যেন পিছু ছাড়ছে না কপিল শর্মার! সুনীল-পর্বের ইতি টেনে একরাশ প্রত্যাশা নিয়ে শুরু করেছিলেন নতুন শো, ‘ফ্যামিলি টাইম উইথ কপিল শর্মা’। তা শুরু হতে না হতেই ঝাঁপ বন্ধ হচ্ছে।

সবেমাত্র তিনটি মাত্র পর্ব সম্প্রচারিত হয়েছে ওই শো-র। আর শুটিং হয়ে রয়েছে আরও বেশ কয়েকটা পর্বের। এরই মাঝে অনুষ্ঠানটি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিলেন টেলিভিশন চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। অভিযোগের তির সঞ্চালক তথা কমেডিয়ান কপিল শর্মার দিকেই। চ্যানেল সূত্রে জানানো হয়েছে যে, কপিলের চূড়ান্ত অপেশাদারিত্বের জন্যই এই অনুষ্ঠান বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছেন তাঁরা।

ঝামেলার সূত্রপাত, কপিলের সঙ্গে এক সাংবাদিকের বাদানুবাদ নিয়ে। প্রকাশ্যেও এসেছিল দুজনের ঝগড়া সেই ভয়েস রেকর্ড। ঝগড়া এমন জায়গায় পৌঁছয় যে, বিবেক লালওয়ানি নামের ওই সাংবাদিককে রীতিমতো গালমন্দ পর্যন্ত করেন কপিল। পরে বিবেকের নামে হেনস্থার মামলা ঠুকে দেন কপিল। মামলা করেন প্রীতি এবং নীতি সিমোজ নামের তাঁর প্রাক্তন দুই ম্যানেজারের নামেও। উল্টো দিকে, কপিলের নামেও মামলা করা হয় বিবেকের ওয়েবসাইটের তরফ থেকে।

নিজের শো-তে সুনীল গ্রোভারকে ডাকেননি কপিল শর্মা! দেখুন ভিডিও

 

এর পর থেকেই শুরু হয় বিস্তর জলঘোলা। অভিযোগ, ‘ফ্যামিলি টাইম উইথ কপিল শর্মা’র নতুন পর্বের জন্য শুটিংই করতে আসেননি কপিল। চ্যানেল কর্তৃপক্ষের দাবি, গত শুক্রবার, ৬ এপ্রিল থেকে তাঁরা ফোনে কপিলের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য বার বার চেষ্টা করেন। কিন্তু কপিল নাকি ধরাছোঁয়ার বাইরে।

আরও পড়ুন: বন্ধ হয়ে যেতে পারে কপিল শর্মার নতুন শো?

আরও পড়ুন:  ‘একশো বার তোকে ফোন করেছি’, টুইটারে সুনীলকে বললেন কপিল

‘ফ্যামিলি টাইম উইথ কপিল শর্মা’র প্রযোজক কপিল নিজেই। চ্যানেল কর্তৃপক্ষের আরও অভিযোগ, প্রযোজক হওয়ার সমস্ত সুযোগ-সুবিধাই ভোগ করেন কপিল। তারকাদের উপরেই অনেকটা নির্ভর করে এই শো’য়ের শুটিং। তাঁদের সঙ্গে কথা বলেই শো’য়ের দিনক্ষণ চূড়ান্ত করে চ্যানেলকে জানান এই কমেডিয়ান। কিন্তু, সেই তারকাদেরই কপিলের অপেক্ষায় বসে থাকতে হয়। এমনকী, কপিলের আশায় বসে থেকে থেকে রানি মুখোপাধ্যায়ের মতো তারকাকেও নাকি শুটিং ছেড়ে ফিরে যেতে হয়।

‘ফ্যামিলি টাইম উইথ কপিল শর্মা’র প্রথম দিন গেস্ট হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অজয় দেবগণ। ছবি: সংগৃহীত।

যদিও শুটিংয়ে দেরি করে আসার অভিযোগ কপিলের বিরুদ্ধে আগেও উঠেছিল। তাবড় তাবড় তারকাদের বসে থাকতে হয় কপিলের অপেক্ষায়। কিন্তু কপিলের সে সবে যেন ‘ডোন্ট কেয়ার’ ভাব। সুনীল গ্রোভারের সঙ্গে বচসার ফলও যে খুব একটা ভাল হয়নি, সে কথাও ঢের বুঝেছিলেন এই কমেডিয়ান। ফের নিজের নতুন শো নিয়ে ফিরে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। ফিরেও এসেছিলেন। কিন্তু সেখানেও ঝামেলায় জড়িয়ে পড়তে হল। সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, “বিপদের ঘণ্টা তখনই বেজে গিয়েছিল যখন মার্কেটিংয়ে লাভের লাভ কিছুই হচ্ছিল না। আর তার পরে কপিল ফোন না ধরায় চ্যানেল কর্তৃপক্ষ বিপাকে পড়েছেন। ৬ এপ্রিল থেকে ফোনে কপিলকে না পেয়ে, শেষমেশ ৯ এপ্রিল শো বন্ধ করতে বাধ্য হয় চ্যানেল।”