• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ছেলের এনগেজমেন্টে তাক লাগালেন নীতা!

Nita Ambani
ছেলের এনগেজমেন্টে নীতার সাজ। ছবি: ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

বয়স ৫৪। শাশুড়ি হতে চলেছেন তিনি। আর কয়েক মাসের মধ্যেই ছেলের বিয়ে। ছেলের এনগেজমেন্ট পার্টিতে কিন্তু হবু শাশুড়ির পারফরম্যান্স তাক লাগিয়ে দিল নিমন্ত্রিতদের। আর সেই পারফরম্যান্সের ঝলক ছড়িয়ে পড়ল সোশ্যাল মিডিয়াতেও। হবু শাশুড়ি অর্থাত্ নীতা অম্বানী।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে মুম্বইতে নীতা এবং অনিলের বড় ছেলে আকাশের এনগেজমেন্ট পার্টি ছিল। সেখানেই বলিউডি গানের তালে পারফর্ম করলেন নীতা।

দীর্ঘদিন ভারতনাট্যমের চর্চা করেছেন নীতা। তালিম নিয়েছেন বিভিন্ন নৃত্যশিল্পীর কাছে। গতকাল সন্ধেয় আবু জানি, সন্দীপ খোসলার ডিজাইনার মেরুন শাড়ি পরেছিলেন তিনি। পার্টিতে শাহরুখ খান, গৌরী খান, প্রিয়ঙ্কা চোপড়া, নিক জোনাস, আলিয়া ভট্ট, রণবীর কপূরের মতো এক ঝাঁক তারকা উপস্থিত ছিলেন। সকলেই নীতার পারফর্ম্যান্সের প্রশংসা করেছেন।

আরও পড়ুন, কনের সাজে সায়ন্তিকা, তোলপাড় ফেলে দিল এই ছবি

মুকেশ এবং নীতা অম্বানীর বড় ছেলে আকাশের হবু বউ তাঁরই স্কুলের বান্ধবী শ্লোক মেহতা। ডিসেম্বরে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন আকাশ এবং শ্লোক। সম্পর্ক আগে থেকেই ছিল। এই বিয়ের ফলে আরও ঘনিষ্ঠ বন্ধনে বাঁধা পড়ছে মুকেশ অম্বানী ও নীরব মোদীর পরিবার।

হীরক ব্যবসায়ী রাসেল ও মোনা মেটার ছোট মেয়ে শ্লোক। মোনার ভাইয়ের স্ত্রী পূর্বী আসলে নীরবের বোন। অর্থাৎ, আকাশ অম্বানীর মামিশাশুড়ি হবেন তিনি। যে হিরে শিল্পপতিকে নিয়ে কিছুদিন আগেও দেশের অর্থনীতি তোলপাড় হয়েছে, তাঁর পরিবারের সঙ্গে অম্বানীদের এই ‘রত্নখচিত’ বন্ধন নিয়ে শুরু হয়েছে চর্চা।

শ্লোকের বয়স ২৭ বছর। মুম্বইতে ধীরুভাই অম্বানী ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে আকাশের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। আর সেখান থেকেই প্রেম।

২০০৯ সালে স্কুল পর্বে ইতি টেনে শ্লোক পাড়ি দেন আমেরিকা। প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ে নৃতত্ব নিয়ে পড়াশোনা শুরু করেন। আর তার পরে লন্ডন স্কুল অব ইকনমিক্স অ্যান্ড পলিটিক্স থেকে মাস্টার্স করেন।

আরও পড়ুন, লড়াইয়ে জিতে গেলেন প্রিয়ঙ্কা!

বিয়ের জন্য ইতিমধ্যেই মুম্বইয়ের ওবেরয় হোটেল বুক হয়ে গিয়েছে। ডিসেম্বরের ৮ থেকে ১২ টানা পাঁচ দিনের জন্য চলবে অম্বানী এবং মেহতা পরিবারের পুত্র কন্যার বিয়ের অনুষ্ঠান।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন