হবু রাজা এবং গবু মন্ত্রীর গল্প বলবেন অনিকেত চট্টোপাধ্যায়। বড়পর্দায় রাজা-রানির গল্প বলা তো সহজ কাজ নয়। তাই অনিকেতের গল্পের জন্য যাবতীয় আয়োজন করছেন দেব। অর্থাত্ প্রযোজনার দায়িত্ব তাঁর। মঙ্গলবারই প্রথম রাজা, রানি এবং মন্ত্রীর সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে দর্শকদের পরিচয় করিয়ে দিলেন দেব। মুক্তি পেল এই ছবির মোশন পোস্টার।

হবু রাজা এবং গবু মন্ত্রী আজ থেকে বোম্বাগড়ে। সঙ্গে রয়েছেন রানি কুসুমকুমারী। রাজা হচ্ছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়। তাঁর মন্ত্রী খরাজ মুখোপাধ্যায়। আর রানির চরিত্রে দেখা যাবে অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়কে।

চলতি বাংলা ছবিতে রূপকথার গল্প সে ভাবে দেখা যায় না। ফলে গত বছরের শেষের দিকে পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায় যখন ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী’ ছবির ঘোষণা করেন, তখন থেকেই  দর্শকদের মধ্যে অপেক্ষা শুরু হয়েছিল। প্রথমে রাজা-রানির চরিত্রে দেব-রুক্মিণীকে কাস্ট করেন পরিচালক। পরে সেই কাস্টের বদল হয়।

দেখুন, বিনোদনের নানা কুইজ

এ ছবির গল্প কেমন? অনিকেত আগেই জানিয়েছিলেন, দক্ষিণারঞ্জন মিত্র মজুমদারের ‘সরকার মশাইয়ের থলে’ আর ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী’ এই দুটো গল্প থেকে স্ক্রিপ্ট করা হয়েছে। এ ছবির মন্ত্রী রাজার বকলমে দেশ শাসন করে। দেশটা যেন উল্টো রাজার দেশ। যেখানে মুড়ি-মিছরির দাম এক। অদ্ভুত বেশ কিছু জিনিস রয়েছে। বিচার ব্যবস্থাও অদ্ভুত। ‘‘মজার গল্প। হাতি, ঘোড়া, রাজসভা, জাদুকর, রাজার পারিষদ থাকবে। বাচ্চাদের জন্য দারুণ এন্টারটেনমেন্ট। ‘হীরক রাজা’, ‘গুপি গাইন বাঘা বাইন’-এর পরে আর রূপকথা সে ভাবে হয়নি। এটা এক রকম রূপকথায় ফিরে আসা’’ বলেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন, ‘আমি ভাগ্যবান #মিটু ফেস করিনি, কিন্তু কেন ভাগ্যবান বলব বলুন তো?’

এ ছবির সঙ্গীতের দায়িত্বে রয়েছেন কবীর সুমন। সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি বছরের বড়দিনে মুক্তি পাবে এই ছবি।

(সিনেমার প্রথম ঝলক থেকে টাটকা ফিল্ম সমালোচনা - রুপোলি পর্দার বাছাই করা বাংলা খবর জানতে পড়ুন আমাদের বিনোদনের সব খবর বিভাগ।)