নাছোড়বান্দা মা। আর তাঁর টিনএজার ছেলে। সব সময় ছেলের পিছনে পড়ে রয়েছেন মা। নিজের সব কাজ ভুলে। একটা সময় তো ছেলের সঙ্গে পড়াশোনা করতেও শুরু করলেন। তার পর?

ছেলে বিরক্ত হয় মায়ের ওপর। কিন্তু মা বুঝতে চান না। এক সময় গান ছিল তাঁর প্রাণ। আজও গানও পথ হারিয়েছে। এই অনস্ক্রিন মা আর ছেলে হলেন কাজল এবং ঋদ্ধি সেন। সদ্য মুক্তি পেল পরিচালক প্রদীপ সরকারের ‘হেলিকপ্টার এলা’র ট্রেলার। সেখানেই এই ভূমিকায় দেখা গিয়েছে কাজল এবং ঋদ্ধিকে।

সিঙ্গল মায়ের লড়াই রয়েছে। সন্তানকে না বুঝতে পারা রয়েছে। টিনএজ সন্তানের মাকে নিয়ে অস্বস্তি রয়েছে। সব মিলিয়ে এ ছবি মা-ছেলের এমন এক সম্পর্কের বুনোটে তৈরি যার সঙ্গে অনেক দর্শক নিজেদের মিল খুঁজে পেতে পারেন। অন্তত ট্রেলারেই সে ইঙ্গিত মিলেছে। অজয় দেবগণ প্রযোজিত এই ছবিতে একটি বিশেষ ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নেহা ধুপিয়া। সব কিছু ঠিক থাকলে ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর।

আরও পড়ুন, কেমন আছেন সোনালি? জানালেন তাঁর স্বামী

সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে কাজল বলেন, ‘‘মা হিসেবে এই ছবির চরিত্রের সঙ্গে আমি কানেক্ট করতে পেরেছি। ছেলেকে এতটাই ভালবাসে যে নিজের জীবনও ছেলেকে ঘিরেই তৈরি করে। অনেক মা এটা করেন। সন্তান বড় হয়ে যাওয়ার পর যে শূণ্যতা তৈরি হয়, তখন মনে হয় এ বার আমি কী করব? তখনই জোর করে সন্তানের জীবনে ঢুকে পড়ার প্রবণতা দেখা যায়।’’ এখনকার সময়ের প্রেক্ষাপটে এ ছবি দর্শকদের ভাল লাগবে বলেই বিশ্বাস কাজলের।

‘পিকু’র মতো বাবা-মেয়ের গল্প নিয়ে তো আগেই সাড়া পড়ে গিয়েছিল। এ বার মা-ছেলের গল্প নিয়ে উন্মুখ বলিউড। বলিউডে অনেকগুলো ছবি হয়ে গিয়েছে তাঁর। তা সত্ত্বেও প্রদীপ সরকারের ‘এলা’ ঋদ্ধি সেনের কাছে স্পেশ্যাল। ছবিতে কাজলের মতো অভিনেত্রী রয়েছে, তাও প্রথম টিজ়ারে মুখ বলতে শুধু ঋদ্ধিরই। জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেতা তাতে উচ্ছ্বসিতও! কিন্তু ছবির নাম বদলে ‘হেলিকপ্টার এলা’ কেন? ‘‘ওটাই রহস্য। কিছু দিন অপেক্ষা করলেই বোঝা যাবে হেলিকপ্টারের মানে’’ বললেন ঋদ্ধি। ঋদ্ধির উত্তরেই লুকিয়ে আছে এই ছবির স্বাতন্ত্র্য!