Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

দেবীপক্ষে শিব-পাবর্তী নেতাজি-রানিমা, ‘অশুভনাশিনী’ শ্রাবন্তী

ক্যালেন্ডারের পাতায় শিউলি ফুলের গন্ধ। আসছে মহালয়া, দেবীপক্ষের সূচনা। আকাশবাণীর বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্র-র ‘মহিষাসুরমর্দিনী’ তো থাকবেই। শুভদিনে দে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২০:১২
Save
Something isn't right! Please refresh.
রানি মা যখন পার্বতী।

রানি মা যখন পার্বতী।

Popup Close

ক্যালেন্ডারের পাতায় শিউলি ফুলের গন্ধ। আসছে মহালয়া, দেবীপক্ষের সূচনা। আকাশবাণীর বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্র-র ‘মহিষাসুরমর্দিনী’ তো থাকবেই। শুভদিনে দেবী দর্শন করতে কার না ইচ্ছে করে? সেই ইচ্ছেকে সঙ্গী করে বাঙালির সেরা উৎসবের সূচনায় বহু বছর ধরেই চ্যানেলে চ্যানেলে মা দুর্গার আবাহন।

জি বাংলায় ‘দুর্গা সপ্ত সতী সম্ভবামি যুগে যুগে

মা দুর্গা ধরা দেবেন সাত রূপে।

Advertisement

ভোর পাঁচটার এই বিশেষ প্রভাতী অনুষ্ঠানে গত তিন বছর ধরে ‘শিব’ অভিষেক বসু। যিনি দর্শকদের প্রিয় ‘নেতাজি’ ছিলেন কিছুদিন আগেও। গত বছরে তাঁর পাশে পার্বতী হয়েছিলেন টলি নায়িকা শুভশ্রী। প্রথম বছরের মতো এ বছরেও এই ভূমিকায় ‘রাসমণি’ দিতিপ্রিয়া রায়। ‘ভ্রামরী’ রাধিকা স্বস্তিকা দত্ত। মহিষাসুরমর্দিনী শ্বেতা ভট্টাচার্য।

দেবীর বাকি রূপে দেখা যাবে ‘কাদম্বিনী’ ঊষসী রায়, সম্প্রীতি পোদ্দার, ‘কৃষ্ণকলি’ তিয়াসা রায়, ‘আলো’ দেবাদৃতা বসু, ‘দুয়োরানি’ সুদীপ্তা রায়কে। পরিচালনায় স্বর্ণেন্দু সমাদ্দার।



মহিষাসুরমর্দিনী শ্বেতা ভট্টাচার্য এবং ‘আলো’ দেবাদৃতা বসু

কালার্সে ফিরে দেখা অশুভনাশিনী

অতিমারির কারণে এ বছরে কোনও ঝুঁকি নয়। কার্লাস বাংলা তাই মহালয়ার ভোরে ফিরে দেখবে গত বছরের ‘অশুভনাশিনী’। যেখানে মা দুর্গা-র ভূমিকায় টলিউড নায়িকা শ্রাবন্তী। কন্যারূপী ‘দুর্গা’ পায়েল দে।

অসুররাজ রম্ভা মুগ্ধ স্ত্রী মহিষের সৌন্দর্যে। দু’জনের মিলনে জন্ম মহিষাসুরের। যার অর্ধেক শরীর মানুষের, বাকিটুকু মহিষ। ক্রমে শক্তিশালী হয়ে ওঠে এই অসুর অধিপতি। ব্রহ্মার বরে পায় অমরত্ব। দেবতারা যখন মহিষাসুরের অত্যাচারে অতিষ্ট তখনই তাঁদের ক্রোধথেকে জন্ম হয় মা দুর্গার। দশ হাতে দেবতাদের দেওয়া অস্ত্রে সেজে যিনি বধ করেন মহিষাসুরকে।

১৭ সেপ্টেম্বর ভোর ৫টায় চ্যানেল খুললেই বড়-ছোট পর্দার এই দুই তারকার সঙ্গে দেখা যাবে সুদীপ মুখোপাধ্যায়, অদৃজা, দেবোত্তমার মতো জনপ্রিয় অভিনেতাদের। অশুভনাশিনীর পুরো গল্প আবর্তিত জমিদার রায়চৌধুরী পরিবারে ঘটতে থাকা অলৌকিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে।



‘কৃষ্ণকলি’ তিয়াসা রায়

আকাশে রাত পোহালো শারদ প্রাতে

কোনও দৃশ্যকল্প নয়। বরং সারা রাত সুরে সুরে আবাহন মহালয়ার ভোরের। গত চার বছর ধরে মহালয়ায় আগের রাত গানে গানে জেগে কাটায় আকাশ আট। সুরের দুনিয়ার তারকা শিল্পীদের সঙ্গে। এ বছরের আয়োজনে থাকছেন ২০ জন দিকপাল। শ্রাবণী সেন, সোমলতা আচার্য, মিস জোজো, লোপামুদ্রা মিত্র, রূপঙ্কর, ইমন চক্রবর্তী হয়ে অদিতি মুন্সী, রথিজিৎ, উজ্জয়িনী, দুর্নিবার।

লাইভ আড্ডায় থাকবেন ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়, বিশ্বনাথ বসু, আর জে কৌশিক। থাকবেভোর ৪টে থেকে ৫টা, এক ঘণ্টার নৃত্যনাট্য ‘মহিষাসুরমর্দিনী’। এখানে মা দুর্গা শ্রীতমা ভট্টাচার্য। স্তোত্রপাঠে শ্রীজন চট্টোপাধ্যায়। গানে ইমন, গৌরব, তৃষা, অরিত্র প্রমুখ। সঙ্গীত পরিচালনায় শোভন গঙ্গোপাধ্যায়। কোরিওগ্রাফিতে সৌরভ চন্দ। ১৬ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর সকাল ৭টা পর্যন্ত টানা ৯ ঘণ্টা ধরে চলবে অনুষ্ঠান।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement