Advertisement
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Nose

Mysterious Fever: নাক থেকে অনর্গল রক্তপাত, দু’সপ্তাহে মৃত্যু, নয়া জ্বরে নয়া উদ্বেগ

আক্রান্ত রোগীর নাক থেকে অনর্গল রক্তপাতের কারণে ভাইরাস ঘটিত এই রোগটিকে ‘নোজব্লিড ফিভার’ বা নাক থেকে রক্ত পড়া জ্বর বলে ডাকা হচ্ছে।

কতটা উদ্বেগের এই জ্বর

কতটা উদ্বেগের এই জ্বর ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০২ জুন ২০২২ ১৬:২৬
Share: Save:

কোভিড-উদ্বেগ এখনও পুরোপুরি কাটেনি। তার মধ্যেই চিন্তা বাড়াচ্ছে বিরল একটি ভাইরাস ঘটিত রোগ। আক্রান্ত রোগীর নাক থেকে অনর্গল রক্তপাতের কারণে ভাইরাস ঘটিত এই রোগটিকে ‘নোজব্লিড ফিভার’ বা নাক থেকে রক্ত পড়া জ্বর বলে ডাকা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ইরাকে ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে এই রোগের প্রকোপে। আক্রান্ত শতাধিক। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) জানাচ্ছে, এই ভাইরাস ঘটিত জ্বর আসল নাম, ‘ক্রিমিয়ান-কঙ্গো হেমারেজিক ফিভার’। রোগ সংক্রমণের দ্বিতীয় সপ্তাহে রোগীর অবস্থার অবনতি হওয়ায় আশঙ্কা বেড়ে যায় অনেকটাই। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই রোগে রোগীমৃত্যুর হার প্রায় ৩০ শতাংশের কাছাকাছি। অথচ এখনও পর্যন্ত এই রোগের কোনও টিকা নেই।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি। ছবি: সংগৃহীত

কী কী উপসর্গ:
১। মাথা যন্ত্রণা
২। তীব্র জ্বর
৩। লাল টকটকে চোখ
৪। পিঠে ব্যথা
৫। পেট ব্যথা ও বমি
৬। অস্থিসন্ধির ব্যথা

এই উপসর্গগুলি ছাড়াও, রোগের তীব্রতা বৃদ্ধি পেলে দেহের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ থেকে শুরু হয় রক্তক্ষরণ। এই অবস্থায় নাক থেকে রক্ত পড়তে দেখা যায় রোগীর।

কী ভাবে ছড়ায়?
মূলত গবাদিপশুর দেহ থেকে এই রোগ সুস্থ মানুষের দেহে সংক্রমিত হয় বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। গবাদিপশুর দেহে অবস্থিত উকুনের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে এই রোগ। পাশাপাশি, পশু নিধনের পর যে রক্ত নির্গত হয় সেই রক্ত থেকেও সুস্থ মানুষের দেহে ছড়িয়ে পড়তে পারে এই রোগ। তবে হঠাৎ করে কেন এই রোগের প্রকোপ এতটা বৃদ্ধি পেল তা নিয়ে নিশ্চিত নন বিশেষজ্ঞরা।
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তেফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE