Advertisement
২৪ জুলাই ২০২৪
Metabolism

৭ খাবার: বিপাকহার উন্নত করবে, ওজন কমবে সহজেই

কার বিপাকহার কেমন হবে, তা অনেকটাই নির্ভর করে খাওয়াদাওয়ার অভ্যাসের উপর। কিন্তু বিপাকহার ভাল করতে হলে কী কী খাবেন?

boost your metabolism

বিপাকহার উন্নত করবেন কী করে? ছবি- সংগৃহীত

শেষ আপডেট: ১০ মে ২০২৩ ১১:১২
Share: Save:

সুস্থ জীবনযাত্রার জন্য প্রয়োজন উন্নত হজম প্রক্রিয়া। শরীরে অতিরিক্ত মেদ জমার পিছনেও নাকি দায়ী সেই বিপাকহার। কারণ, ওজন ঝরানোর সঙ্গে মেটাবলিজ়ম বা বিপাকহারের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। বিপাক হল এক ধরনের প্রক্রিয়া, যার মাধ্যমে খাবার থেকে প্রয়োজনীয় শক্তি সঞ্চয় করে শরীর। কার বিপাকহার কেমন হবে, তা খাওয়াদাওয়ার অভ্যাসের উপর অনেকটাই নির্ভর করে। আবার এই বিপাকহারের উপর নির্ভর করে প্রায় সব শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়া। রক্তে শর্করার মাত্রা থেকে ঋতুস্রাবে হরমোনের প্রভাব, সব কিছুর চাবিকাঠি মেটাবলিক রেটের হাতে। শরীর সুস্থ রাখতে এবং একসঙ্গে এত কিছু সামাল দিতে গেলে দেহের বিপাকহার ভাল করতেই হবে। সাধারণ কিছু খাবার দিয়ে এই বিপাকহারের মান উন্নত করা যায়। কিন্তু কী ভাবে?

১) কফি: কফির গন্ধে ঘুম ভাঙে অনেকেরই। কফিতে থাকা ক্যাফিন বিপাকহার বৃদ্ধি করে। দেহের অতিরিক্ত মেদ পুড়িয়ে সেখান থেকে শক্তি সঞ্চয় করতে সাহায্য করে। স্বাভাবিক ভাবেই এর প্রভাব পড়ে ওজনের উপর।

২) তিসি: অন্ত্রের স্বাস্থ্য ভাল থাকলে বিপাকহার উন্নত হয়। ফাইবার, প্রোটিন এবং ভিটামিনে সমৃদ্ধ তিসি অন্ত্রের জন্য উপকারী। নিয়মিত তিসি খেলে ধীরে ধীরে বিপাকহারও উন্নত হয়।

৩) ডাল: বিপাকহার উন্নত করতে প্রোটিন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ডাল উদ্ভিজ্জ প্রোটিনের উৎস। এ ছাড়াও ডালে ফাইবারের পরিমাণ বেশি। তাই ডাল অন্ত্রের স্বাস্থ্যরক্ষা থেকে বিপাকহার— সবেরই খেয়াল রাখে।

৪) আদা: খাবার হজম না হলে অনেকেই আদা কুচি খেয়ে থাকেন। হজম ভাল হলে তার প্রভাব পড়ে বিপাকহারের উপর। শুধু তা-ই নয়, ওজন এবং রক্তে খারাপ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করতেও সাহায্য করে আদা।

Image of Apple Cider Vinegar

অনেকে সকালবেলা উষ্ণ জলে লেবুর রসের বদলে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার খেয়ে থাকেন। ছবি- সংগৃহীত

৫) লঙ্কা: অনেকেই বিশ্বাস করেন, ঝাল খেলে ওজন কমে। ঝালের সঙ্গে মেদ ঝরার সম্পর্ক আসলে বিপাকহারের জন্য। লঙ্কায় থাকা ক্যাপসাইসিন মেটাবলিক রেট উন্নত করে। যা দেহের অতিরিক্ত ক্যালোরি পোড়াতে সাহায্য করে।

৬) চা: গ্রিন টি হোক বা দুধ, চিনি ছাড়া সাধারণ আদা চা বিপাকহার উন্নত করার সহজ পন্থা এটি। বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে প্রতি দিন ৩ থেকে ৪ কাপ চা খেলে শরীরে মেটাবলিক রেট বেড়ে যায়। ‘ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ ওবেসিটি’-র মতে হোয়াইট টি ৭০ থেকে ৯৫ শতাংশ ক্যালোরি পোড়াতে পারে।

৭) অ্যাপল সাইডার ভিনিগার: অনেকে সকালবেলা উষ্ণ জলে লেবুর রসের বদলে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার খেয়ে থাকেন। এই ভিনিগারে অ্যাসিডের পরিমাণ লেবুর চেয়ে বেশি। যা অন্ত্রের স্বাস্থ্যরক্ষা করে এবং বিপাকহারও বাড়িয়ে তোলে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Metabolism Foods apple cider vinegar
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE