Advertisement
০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Tamilnadu

সমস্যা মুখগহ্বরের, অস্ত্রোপচার হল লিঙ্গে! হাসপাতালের বিরুদ্ধে থানায় রোগীর পরিবার

ভুল করে মুখের বদলে লিঙ্গে অস্ত্রোপচার করার অভিযোগ উঠল তামিলনাড়ুর ‘গভর্নমেন্ট রাজাজি হসপিটাল’-এর বিরুদ্ধে। থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন বিরুধুনগরের বাসিন্দা আর অজিতকুমার নামের এক ব্যক্তি।

অজিতকুমারের অভিযোগ, আগেও এক বার অস্ত্রোপচার হয়েছিল ছেলের।

অজিতকুমারের অভিযোগ, আগেও এক বার অস্ত্রোপচার হয়েছিল ছেলের। প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
চেন্নাই শেষ আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০২২ ১৮:১২
Share: Save:

মুখে ‘সিস্ট’ হয়েছিল। তাই ছেলেকে নিয়ে গিয়েছিলেন সরকারি হাসপাতালে। কিন্তু সেখানে চিকিৎসকরা ভুল করে লিঙ্গে অস্ত্রোপচার করে দেন। এমনই অভিযোগ করলেন তামিলনাড়ুর বাসিন্দা এক ব্যক্তি। তামিলনাড়ুর ‘গভর্নমেন্ট রাজাজি হসপিটাল’-এর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন বিরুধুনগরের বাসিন্দা আর অজিতকুমার। যদিও বিষয়টিও অস্বীকার করেছেন জিআরএইচ-এর ডিন আর রথিনভেল।

Advertisement

অজিতকুমারের অভিযোগ, আগেও এক বার অস্ত্রোপচার হয়েছিল ছেলের। ২১ তারিখ ফের এক বার ডাক্তার দেখাতে ছেলেকে নিয়ে হাসপাতালে যান তাঁরা। তখন চিকিৎসকরা বলেন, আরও এক বার অস্ত্রোপচার করতে হবে ছেলের। রাজিও হয়ে যান তাঁরা। কিন্তু তার পরই দেখা যায় খুদের লিঙ্গে অস্ত্রোপচার করেছেন চিকিৎসকরা। কী হয়েছে জানতে চাইলে শল্যচিকিৎসকরা কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি বলে অভিযোগ করেন অজিতকুমার। তাঁদের ধারণা, ভুল করে সন্তানের লিঙ্গে অস্ত্রোপচার করে ফেলেছেন চিকিৎসকরা। এই মর্মে জিআরআইচ থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন তাঁরা।

অবশ করার সময়ে দেখা যায় প্রস্রাব নির্গমনে সমস্যা রয়েছে শিশুটির।

অবশ করার সময়ে দেখা যায় প্রস্রাব নির্গমনে সমস্যা রয়েছে শিশুটির। প্রতীকী ছবি।

গোটা বিষয়টিতে নিজেদের গাফিলতি মানতে নারাজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের ডিন আর রথিনভেলের দাবি, গত বছর ২ নভেম্বর ‘কনজেনিটাল ফোরগাট ডুপ্লিকেশন সিস্ট’ নামের একটি সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় শিশুটি। তখন অস্ত্রোপচার করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি শিশুটির জিভে ফের একটি সমস্যা দেখা দেয়। আবারও অস্ত্রোপচার করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। কিন্তু অবশ করার সময়ে দেখা যায় প্রস্রাব নির্গমনে সমস্যা রয়েছে শিশুটির। দেখা যায়, ‘ফাইমোসিস’ নামে লিঙ্গের একটি সমস্যা রয়েছে তার। তাই একই সঙ্গে দু’টি সমস্যার সমাধান করতেই মুখের পাশাপাশি লিঙ্গেও অস্ত্রোপচার করার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। চিকিৎসকের দাবি, বার বার যাতে শিশুটিকে অবশ না করতে হয়, সে জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। এখন শিশুটি ভাল আছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.