Advertisement
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

জন্মছকের গ্রহের কোন অবস্থানে হৃদয় চাইলেও বিয়ে হয় না

বিয়ে হওয়া আর না হওয়াটা হল হৃদয় ও জন্মছকের খেলা। দুটো যদি একই সঙ্গে বিয়ে চায়, তবে এ জীবনে বিয়ে হবেই। আবার হৃদয় ও জন্মছক যদি উভয়েই বিয়ে করতে না চায়, তখন বিয়ে হবে না।

অসীম সরকার
শেষ আপডেট: ২৪ জুন ২০১৯ ০১:১২
Share: Save:

বিয়ে হওয়া আর না হওয়াটা হল হৃদয় ও জন্মছকের খেলা। দুটো যদি একই সঙ্গে বিয়ে চায়, তবে এ জীবনে বিয়ে হবেই। আবার হৃদয় ও জন্মছক যদি উভয়েই বিয়ে করতে না চায়, তখন বিয়ে হবে না। এই জাতক স্বেছায় বিয়ে করেন না। খুব পরিণত ও মহান আত্মার ক্ষেত্রে এমনই হয়ে থাকে। আবার এমনও হয়, হৃদয় বিয়ে করতে চাইছে কিন্তু জন্মছক চাইছে না। তা হলে চেষ্টা করলেও বিয়ে হবে না। যেটা আমাদের জীবনে অনেকের ক্ষেত্রেই হয়ে থাকে। আবার এমনও হয়, জন্মছক চাইছে, হৃদয় চাইছে না। এমন ক্ষেত্রেও বিয়ে হয়। তবে এই সব বিয়ে খুব জটিল প্রকৃতির। মোট কথা, জন্মছকে বিয়ে থাকতেই হবে, তবেই বিয়ে হওয়া সম্ভব।

এ বার আমরা দেখব কোন জন্মকুণ্ডলীর জীবনে বিয়ে হওয়াটা কষ্টকর:

(১) যদি এমন কোনও ছক থাকে, যেখানে সপ্তম ভাবকে কোনও ক্রমে শনি ও রবি প্রভাবিত করে হয় যুগ্ম ভাবে অবস্থান করে, বা সপ্তম পতিকে শনি ও রবি দৃষ্টি দেয়, তা হলে জেনে রাখুন, প্রকৃতি আপনাকে বিয়ে করতে বারণ করছে। ব্যাতিক্রম অবশ্য আছে। যদি সপ্তম পতি বা সপ্তম ভাবের উপর কোনও শুভ গ্রহের মারাত্মক প্রভাব পড়ে, তবে অনেক কষ্টে আপনি আপনার জীবনসঙ্গীর সন্ধান পেতে পারেন। তবে আপনার বিয়ে আর পাঁচটা স্বাভাবিক বিয়ের মতো হবে না।

(২) কোনও নারীর জন্মছকে শুক্র যদি শনি ও রবির সঙ্গে যুগ্মভাবে অবস্থান করে বা দৃষ্টি প্রাপ্ত হয়ে থাকে তা হলে সেই নারীকে এই জীবনে সম্ভবত বিয়ে থেকে বিরত থাকতে হবে। এটাই প্রকৃতির নির্দেশ।

(৩) যদি কোনও জন্মছকের দ্বিতীয় ভাবে শনি এবং দ্বাদশ ভাবে রবি বা বিপরীতক্রমে দ্বিতীয় ভাবে রবি এবং দ্বাদশ ভাবে শনি অবস্থান করে, অর্থাৎ লগ্ন দু’পাশের শনি ও রবির ট্র্যাপে পড়ে ফল প্রকাশে বাধা পায়, এমন জন্মছকের জাতকের এ জীবনে বিয়ে করার ইচ্ছা থাকলেও বিয়ে হওয়া কার্যত অসম্ভব।

আরও পড়ুন: বাড়িতে যেখানে সেখানে ক্যালেন্ডার নয়, হতে পারে বিপদ

(৪) একই ভাবে কোনও জন্মছকের সপ্তম ভাবের দু’পাশ, মানে ষষ্ঠ ভাব এবং সপ্তম ভাব এই রকম ভাবে শনি ও রবির চাপে ওষ্ঠাগত হয়ে থাকে, এবং একই ভাবে শুক্র অন্য কোনও অশুভ গ্রহ দ্বারা কুপিত হলে জাতকের বিয়ে হওয়া মুশকিল।

(৫) যদি কোনও জন্মছকে শনি লগ্ন বা সপ্তম ভাবকে দৃষ্টি দেয় আর রবি ও শনি পরস্পর পরস্পরকে দৃষ্টি বিনিময় করে বা নিজেদের স্থান পরিবর্তন করে, এমন কুণ্ডলী যাঁর, তাঁর এ জীবনে বিয়ের আশা না করাই ভাল।

(৬) বক্রী শনি একাদশ পতি হিসেবে সপ্তম অথবা নবম ভাবে যদি অবস্থান করে, সেই জন্মছকের মালিক বিয়ে থেকে যত দূরে থাকবেন ততই শান্তিতে থাকবেন।

(৭) যদি কোনও জন্মছকে দ্বিতীয় ও সপ্তম ভাবে প্রাকৃতিক ভাবে স্বীকৃত অশুভ গ্রহ অবস্থান করে আর এই ভাবগুলির উপর কোনও বক্রী গ্রহ দৃষ্টি দেয়, তবে এই ছকের অধিকারীর বিয়ে না করাই ভাল।

(৮) কোনও জন্মছকে সপ্তম পতি যদি রবির সঙ্গে অবস্থান করে আর সেখানে শনি দৃষ্টি দেয়, তা হলে এই জন্মছকের মালিকের বিয়ে হওয়া সমস্যার।

(৯) লগ্ন বা শুক্রের দ্বিতীয় ভাবে বা চতুর্থ ভাবে যদি বুধ অবস্থান করে, তবে এই জাতকের বিয়ে না হওয়ার আশঙ্কা প্রবল।

(১০) যদি জন্মছকের পঞ্চম ভাবে দুর্বল চন্দ্র অবস্থান করে, আর বিভিন্ন অশুভ গ্রহ লগ্নে, সপ্তমে এবং দ্বাদশে অবস্থান করে, তবে এই জন্মছকের অধিকারীর বিয়ে হওয়া মুশকিল। যদি শুভ গ্রহের দৃষ্টির কারণে বিয়ে হয়, তবে সন্তানের জন্য সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.