×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

ধর্ষণের চার বছর পর তরুণীকে খুন, অভিযুক্ত একই ব্যক্তি

সংবাদ সংস্থা
১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ ১১:৫৬

মেয়েটা চেয়েছিল বাঁচতে। ঘৃণ্য অত্যাচারের প্রতিবাদ করেছিল কিশোরীটি। চেয়েছিল ন্যায্য বিচারও। আর তাই ধর্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে দাঁড়িয়ে বিচার চেয়েছিল বছর চোদ্দর ওই প্রতিবাদী। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত প্রাণ দিয়ে প্রতিবাদের মূল্য চোকাতে হবে তা বোধহয় সে বুঝতে পারেনি!

দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে প্রাণ গেল উত্তরপ্রদেশের দক্ষিণতোলা এলাকার বীজপুরের ওই তরুণীর। অভিযোগ, ২০১১-য় স্থানীয় কলেজ ম্যানেজার বি কে সিংহ ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। তার পর থেকে টানা চার বছর মামলা চলছে। শনিবারেও আদালতে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সাক্ষী দিতে গিয়েছিল ওই তরুণী। এর পর রবিবার দুপুরে অজ্ঞাতপরিচয় এক বাইক আরোহীর ছোড়া গুলি থামিয়ে দিল ওই প্রতিবাদীর স্বর।

পুলিস সূত্রে খবর, রবিবার ভাইকে সঙ্গে নিয়ে ডাক্তার দেখাতে যাচ্ছিলেন ওই তরুণী। পথে হঠাত্ই গুলিবিদ্ধ হয় সে। রাস্তাতেই লুটিয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ১৮ বছর বয়সী ওই তরুণী। মৃতার পরিবারের দাবি, অভিযুক্ত বি কে সিংহই লোক লাগিয়ে তাদের মেয়েকে খুন করিয়েছে। পুলিশের কাছে এ নিয়ে অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

Advertisement
Advertisement