Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Gujarat Bridge Collapse

গুজরাতে ঝুলন্ত সেতু বিপর্যয়ে মৃত্যু বেড়ে ৯১, সোমবার যেতে পারেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, রক্ষণাবেক্ষণের পর পাঁচ দিন আগেই নতুন করে চালু করা হয়েছিল সেতুটিকে। ছ’দিনের মাথাতেই ঘটে গেল বিপর্যয়।

গুজরাতে ভেঙে পড়ল ঝুলন্ত সেতু ।

গুজরাতে ভেঙে পড়ল ঝুলন্ত সেতু । ছবি: পিটিআই

সংবাদ সংস্থা
আমদাবাদ শেষ আপডেট: ৩০ অক্টোবর ২০২২ ২৩:৩২
Share: Save:

গুজরাতে ঝুলন্ত সেতু ভেঙে পড়ার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। শেষ পাওয়া খবর, এখনও পর্যন্ত ৯১ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গুরুতর জখম হয়েছেন বহু মানুষ। তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। সামনেই গুজরাতের বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে রবিবারই তিন দিনের গুজরাত সফরে এসেছেন মোদী। তার মধ্যেই এই বিপর্যয়। সূত্রের খবর, মাচ্চু নদীর চরে আটকে পড়েছেন অন্তত ১০০ জন। প্রকাশ্যে আসা ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, বহু মানুষ নদীর জল সাঁতরে ডাঙায় ওঠার চেষ্টা করছেন।

স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ মাচ্চু নদীর উপর ওই ঝুলন্ত সেতুটি ভেঙে পড়ে ওই ঘটনা ঘটে। একসঙ্গে অন্তত ৫০০ জন ওই সেতুতে উঠে পড়ার জেরে এই বিপর্যয় ঘটেছে। মৃতদের মধ্যে ২৫ জন শিশুও রয়েছে বলে খবর। প্রথমে স্থানীয় বাসিন্দাদের সাহায্যে উদ্ধারকাজ চললেও, পরে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এবং পুলিশ গিয়ে উদ্ধারকাজ শুরু করে। এখনও সেই উদ্ধারকাজ চলছে। আপৎকালীন পরিস্থিতির মোকাবিলায় অনেকগুলি অ্যাম্বুল্যান্সকে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ জানাচ্ছেন, সেতুর উপরে যাঁরা ছিলেন, তাঁদের অধিকাংশই পর্যটক।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, রক্ষণাবেক্ষণের পর পাঁচ দিন আগেই নতুন করে চালু করা হয়েছিল সেতুটিকে। ছ’দিনের মাথাতেই ঘটে গেল বিপর্যয়।

ঘটনার পরই গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র পটেলকে ফোন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি রাজ্য প্রশাসনকে উদ্ধারকাজে গতি আনার নির্দেশ দিয়েছেন। পরে প্রধীনমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, “দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করার জন্য এবং পরিস্থিতির দিকে সজাগ নজর রাখার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।”

এই ঘটনায় মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পাশাপাশি আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছেন। মৃতদের পরিবারকে ৪ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করেছে গুজরাত সরকার। টুইটারে এই বিপর্যয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি লিখেছেন, ‘‘গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র পটেলের সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে। পুরোদমে উদ্ধারকাজ শুরু হয়েছে।’’ সূত্রের খবর সোমবার ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে যেতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

টুইট করে শোকপ্রকাশ করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা লিখেছেন, ‘‘গুজরাতের মোরবিতে সেতু বিপর্যয়ের ঘটনায় গভীর ভাবে উদ্বিগ্ন। বহু মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। বহু মানুষ নিখোঁজ। মৃতদের পরিবারকে সমবেদনা জানাই। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE