Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় তৈরি সেনাবাহিনী, চিন প্রশ্নে সংসদে জবাব রাজনাথের

এ দিন সংসদে অধীর চৌধুরী বলেন, ‘‘পাকিস্তান জঙ্গিদের আশ্রয় দেয়, আর চিন দেয় পাকিস্তানকে। যখন পাকিস্তানের প্রশ্ন ওঠে, তখন আমরা কড়া অবস্থান নিই।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯ ১৪:১৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
রাজনাথ সিংহ (বাঁ দিকে) ও অধীর রঞ্জন চৌধুরী। —ফাইল চিত্র

রাজনাথ সিংহ (বাঁ দিকে) ও অধীর রঞ্জন চৌধুরী। —ফাইল চিত্র

Popup Close

ভারতের জলসীমায় চিনের ‘আগ্রাসন’ নিয়ে সংসদে প্রশ্ন তুললেন অধীর চৌধুরী। বুধবার কংগ্রেসের লোকসভার দলনেতা অধীর অভিযোগ তোলেন, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কড়া মনোভাব নিলেও চিনের প্রতি কেন্দ্র নমনীয়। যদিও অভিযোগ খণ্ডন করে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ বলেছেন, দেশের সুরক্ষা বাহিনীর জওয়ানরা সর্বদা কড়া নজর রাখেন। এ নিয়ে কোনও সন্দেহই নেই। তবে রাজনাথের যুক্তি, বহু জায়গায় চিনের সঙ্গে ভারতের সীমান্ত নির্দিষ্ট না থাকাতেও অনেক সময় এই সমস্যা হয়।

মঙ্গলবারই নৌসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল করমবীর সিংহ জানিয়েছিলেন, দিল্লির অনুমতি না নিয়ে সম্প্রতি ভারত মহাসাগরে ভারতীয় জলসীমায় ঢুকে পড়েছিল ‘শি ইয়ান ১’ নামে একটি চিনা জাহাজ। পিছু তাড়া করে নৌবাহিনী সেটিকে ভারতীয় জলসীমার বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছে। শুধু এটিই নয়, মাঝে মধ্যেই এই রকম চিনা জাহাজ ঢুকে পড়ে বলেও জানিয়েছিলেন নৌসেনা প্রধান।

এ দিন সংসদে এই নিয়ে প্রশ্ন তোলেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘‘পাকিস্তান জঙ্গিদের আশ্রয় দেয়, আর চিন দেয় পাকিস্তানকে। আন্দামান-নিকোবর অঞ্চলে জাহাজ পাঠাচ্ছে চিন। যখন পাকিস্তানের প্রশ্ন ওঠে, তখন আমরা কড়া অবস্থান নিই। কিন্তু চিনের ক্ষেত্রে অনেক নমনীয় অবস্থান নেওয়া হয় কেন?’’ জাহাজ ঢুকে পড়ার ঘটনাকে ‘দেশের নিরাপত্তার প্রশ্নে অত্যন্ত গুরুতর’ বিষয় বলেও মন্তব্য করেন বহরমপুরের সাংসদ।

Advertisement

জবাবে রাজনাথ সিংহ বলেন, ‘‘ভারত-চিনের মধ্যে পারস্পারিক বোঝাপড়ার ভিত্তিতে কোনও লাইন অব অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল (এলএসি) বা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা নেই। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা নিয়ে মতভেদের জন্যই মাঝেমধ্যে চিনা অনুপ্রবেশ ঘটে। আমি সেটা মানি। কখনও চিনের সেনা ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়ে, কখনও বা ভারতীয় বাহিনী চিনের সীমান্ত পার হয়ে যায়। তবে দেশের ঐক্য, নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ভারত-চিন সীমান্ত এলাকায় রাস্তা, টানেল, রেললাইন, এয়ার বেস তৈরির মতো পরিকাঠামো উন্নয়নের কাজ চলছে।’’

আরও পড়ুন: ছত্তীসগঢ়ে ৫ সহকর্মীকে গুলি করে মেরে আত্মঘাতী আইটিবিপি-র বাঙালি জওয়ান, নিহতদের মধ্যেও ২ জন বাঙালি

আরও পড়ুন: নাগরিকত্ব বিলে সায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার, আগামী সপ্তাহেই পেশ হবে সংসদে

এর পাশাপাশি প্রতিরক্ষামন্ত্রী আশ্বস্ত করেছেন, ‘‘আমি সংসদকে নিশ্চিত করে বলতে চাই যে, আমাদের সেনাবাহিনী সারাক্ষণ সীমান্ত সুরক্ষায় তৎপর। আমাদের বাহিনী যে কোনও সময় যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় তৈরি। তা নিয়ে কারও কোনও সন্দেহ থাকা উচিত নয়।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement