Advertisement
২৬ মার্চ ২০২৩
Air India Pee-gate

প্রস্রাবকাণ্ডে অভিযুক্ত শঙ্করকে জামিন আদালতের, অভিযোগকারী আর সাক্ষীর বয়ানে ফারাক!

এই ঘটনায় ধৃত শঙ্কর জামিনের আবেদন করেছিলেন। সেই মামলার শুনানিতে সোমবার আদালত তদন্তকারী পুলিশকেই ভর্ৎসনা করেছিল।

বিমানে প্রস্রাবকাণ্ডে জামিন পেলেন শঙ্কর মিশ্র।

বিমানে প্রস্রাবকাণ্ডে জামিন পেলেন শঙ্কর মিশ্র। — ফাইল ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ১৮:৩২
Share: Save:

এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে প্রস্রাবকাণ্ডে অভিযুক্ত শঙ্কর মিশ্রকে জামিন দিল দিল্লির পটিয়ালা হাউস কোর্ট। ১ লক্ষ টাকা বন্ডের বিনিময়ে তাঁকে জামিন দিয়েছে আদালত। গত ২৬ নভেম্বর নিউ ইয়র্ক থেকে নয়াদিল্লিগামী বিমানে এক প্রবীণার গায়ে শঙ্কর প্রস্রাব করে দেন বলে অভিযোগ।

Advertisement

এই ঘটনায় ধৃত শঙ্কর জামিনের আবেদন করেছিলেন। সেই মামলার শুনানিতে সোমবার আদালত তদন্তকারী পুলিশকেই ভর্ৎসনা করেছিল। বলেছিল, ‘‘যে সাক্ষীদের আপনারা (তদন্তকারী সংস্থা) হাজির করিয়েছেন, তাঁরা আপনাদের পক্ষে কথা বলছেন না। অভিযোগকারী এবং সাক্ষী ইলা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যে ফারাক রয়েছে।’’

দিল্লি পুলিশ যদিও জামিনের বিরোধিতা করেছিল। বলেছিল, ‘‘এই ঘটনার জন্য আন্তর্জাতিক মহলে ভারতের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’’ এই প্রসঙ্গে বিচারক বলেছিলেন, ‘‘এটা বিরক্তিকর হতে পারে, কিন্তু সেটা অন্য ঘটনা। এখন এর মধ্যে না ঢোকাই শ্রেয়। আইন এই বিষয়টিকে কী ভাবে দেখছে, আগে দেখা উচিত।’’ তদন্তকারীরা এ-ও দাবি করেন, তাঁদের সঙ্গে একেবারেই সহযোগিতা করেননি শঙ্কর। নিজের সব মোবাইল ফোন বন্ধ করে রেখেছিলেন।

গত ১১ জানুয়ারি শঙ্করের জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয় জেলাশাসকের আদালত। জানিয়েছিল, এই কাজ ‘জঘন্য এবং ন্যক্কারজনক’। এর আগে অসামরিক বিমান নিয়ামক সংস্থা ডিরেক্টরেট জেনারেল অব সিভিল অ্যাভিয়েশন (ডিজিসিএ) বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়াকে ৩০ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছিল। এই পরিস্থিতি সঠিক ভাবে মোকাবিলা করা হয়নি বলে পাইলট-ইন-চার্জের লাইসেন্স তিন মাসের জন্য নিষ্ক্রিয় করা হয়।

Advertisement

অভিযোগ, গত ২৬ নভেম্বর নিউ ইয়র্ক থেকে দিল্লিগামী এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে শঙ্কর মিশ্র মত্ত অবস্থায় এক সহযাত্রীর সামনে যৌনাঙ্গ প্রদর্শন করেন ও তাঁর গায়ে প্রস্রাব করেন। বিমানকর্মীদের জানিয়েও লাভ হয়নি বলে অভিযোগ করেন ৭০ বছরের প্রবীণা। এর পর টাটা গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান এন চন্দ্রশেখরনকে চিঠি লেখেন তিনি। সেই চিঠি প্রকাশ পেতেই শুরু হয় বিতর্ক।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.