Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বিশ্বাসে ভর করেই কাজ করেছেন সুষমা: জেটলি

এত দিন দলকে পাশে পেয়েছেন। পেয়েছেন আরএসএস-কেও। এ বার ললিত-বিতর্কে সরকারকেও পাশে পেলেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্

সংবাদ সংস্থা
১৬ জুন ২০১৫ ১২:৫৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
মানস সরোবর যাত্রার সূচনা করছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। ছবি: পিটিআই।

মানস সরোবর যাত্রার সূচনা করছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। ছবি: পিটিআই।

Popup Close

এত দিন দলকে পাশে পেয়েছেন। পেয়েছেন আরএসএস-কেও। এ বার ললিত-বিতর্কে সরকারকেও পাশে পেলেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহকে পাশে বসিয়ে সুষমার সঙ্গে থাকার বার্তা দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।

শুধু দল নয়, সরকারও যে বিদেশমন্ত্রীর পাশে রয়েছে সে কথা জানিয়ে এ দিন বিকেলে জেটলি বলেন, ‘‘বিশ্বাসে ভর করেই কাজ করেছেন সুষমা। গোটা দল ও সরকার এ বিষয়ে ঐক্যবদ্ধ। এবং তাঁর পাশেই আছে।’’ এ দিন সকালেই জানা গিয়েছিল, বিকেলে যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন করবেন রাজনাথ-জেটলি। সেই বৈঠকের আগে ঘণ্টাখানেক সুষমার সঙ্গেও একান্তে বৈঠক করেন দুই মন্ত্রী।

তবে তাঁর দলের দুই প্রবীণ ও প্রভাবশালী নেতা তথা মন্ত্রিসভার দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ললিত-বিতর্কে মুখ খুললেও এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে নীরব প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ দিন তাঁর স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কংগ্রেস মুখপাত্র আনন্দ শর্মা। তিনি বিদেশমন্ত্রীর পদত্যাগও দাবি করেন। শুধু তাই নয়, যে মানবিকতার দোহাই দিয়ে ললিত মোদীকে সস্ত্রীক বিদেশে যাওয়ার ব্যবস্থা করেন সুষমা তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন কংগ্রেসের ওই প্রবীণ নেতা। তাঁর দাবি, স্ত্রীর সঙ্গে ইবিজাতে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন ললিত।

Advertisement

লক্ষণীয় ভাবে ইস্যুটাকে সুষমা স্বরাজের ভেতরেই সীমাবদ্ধ রাখার চেষ্টা করছে বিজেপি। রাহুল গাঁধী থেকে শুরু করে বিরোধীরা এই ইস্যুটিকে ঘিরে প্রধানমন্ত্রীকে যতই বিঁধবার চেষ্টা করুন না কেন, তিনি তার ধারেপাশে ঘেঁষতে নারাজ। সেই জন্যই রাহুল গাঁধী সোমবার যখন প্রধানমন্ত্রী ভূমিকা নিয়ে প্রশন তুললেন, তখন বিজেপি নেতৃত্ব ‘ভিত্তিহীন’ অভিযোগের জবাব দেওয়ার দরকার নেই বলে বিষয়টাকে এড়িয়ে গিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ললিত মোদীর ছবি নিয়ে কংগ্রেস যে আক্রমণ শানিয়েছে, সে প্রসঙ্গেও পাল্টা ছবি ছাপানোর হুমকি দিয়ে প্রতি আক্রমণে যাওয়ার নীতি-ই নিয়েছে বিজেপি।

ছবি প্রসঙ্গে এ দিন ফের কংগ্রেসকে বিঁধেছেন বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভ়ড়েকর। তাঁর প্রশ্ন, ললিত মোদীর সঙ্গে কংগ্রেস নেতাদের যে সব ছবি আছে তার কী হবে? এর আগে ললিত মোদীর পাশে বসে থাকা সুষমা স্বরাজের ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। সোমবার কংগ্রেস আরও একটি ছবি প্রকাশ্যে আনে। সেখানে নরেন্দ্র মোদীর এক পাশে বসে আছেন ললিত এবং অন্য পাশে আছেন বিজেপি-র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। সেই অস্বস্তি কাটাতে বিজেপি-র তরফে পাল্টা আক্রমণ শানানো হচ্ছে। শুধু প্রশ্ন তুলেই ক্ষান্ত হননি প্রকাশ। সরাসরি আক্রমণ করেছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধীকে। বাদ যাননি রাহুলও। কয়লা কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্তদের সকলের সঙ্গে সনিয়া-রাহুলের ছবি আছে বলে দাবি করেন বিজেপি-র ওই নেতা।

এরই মধ্যে এ দিন মানস সরোবর যাত্রা নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। বিরোধী দলগুলি যখন তাঁর পদত্যাগের দাবিতে সরব, প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি চেয়ে গলা ফাটাচ্ছে অনেকেই, তখন ধীর এবং শান্ত ভঙ্গিমায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বললেন সুষমা। কোথাও কোনও অস্বস্তি দেখা যায়নি তাঁর উপস্থিতিতে। তবে, ললিত প্রসঙ্গে একটি কথাও বলেননি তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement