Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
Ashok Gehlot

রণে ভঙ্গ দিলেন গহলৌত, কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে লড়ছেন না, ক্ষমা চেয়ে এলেন সনিয়ার কাছেও

গহলৌতকে প্রশ্ন করা হয়, তিনিই কি রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে কাজ চালিয়ে যাবেন? তাঁর সংযমী উত্তর, “সেটা আমি ঠিক করার কেউ নই। কংগ্রেসের সভাপতি সনিয়া গান্ধীই সেটা ঠিক করবেন।”

অশোক গহলৌত এবং সনিয়া গান্ধী।

অশোক গহলৌত এবং সনিয়া গান্ধী। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৭:১৬
Share: Save:

রাজস্থানের রাজনৈতিক রঙ্গের জের এসে পড়ল দেশের রাজধানীতেও। বৃহস্পতিবার দিল্লিতে কংগ্রেসের অন্তর্বর্তিকালীন সভাপতি সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করার পর, সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত জানিয়ে দিলেন, তিনি দলের সভাপতি নির্বাচনে লড়ছেন না। রাজস্থানে মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে টানাপড়েন এবং দলের সভাপতি নির্বাচন নিয়ে অভ্যন্তরীণ কোন্দলের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনার জন্য অশোক গহলৌতকে বৈঠকের জন্য ডেকে পাঠিয়েছিলেন সনিয়া গান্ধী। বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য বৃহস্পতিবার রাতেই দিল্লি পৌঁছে যান গহলৌত।

Advertisement

শুক্রবার সনিয়ার বাসভবন থেকে বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে গহলৌত বলেন, “সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে আমার বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। গত দু’দিনে যা হয়েছে, তাতে আমরা প্রত্যেকেই অবাক হয়েছি। এই ঘটনায় এই বার্তা গিয়েছে যে, আমি মুখ্যমন্ত্রী হতে চাই। আমি ওঁর (সনিয়া গান্ধী) কাছে ক্ষমা চেয়েছি।” দলের সভাপতি হওয়ার বিষয়ে তাঁর যে কোনও মোহ নেই সে কথা বোঝাতে গহলৌত জানান, তিনি কোচিতে গিয়ে রাহুল গান্ধীকে দলের সভাপতি হওয়ার অনুরোধ জানান। কিন্তু রাহুল তাতে সম্মত হননি বলে দাবি তাঁর।

একই সঙ্গে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন, দলের সভাপতি নির্বাচনে তিনি লড়ছেন না। তার কারণ ব্যাখ্যা করে রাজস্থানের তিন বারের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এই পরিবেশে নৈতিক দায়িত্ববোধ থেকেই আমি দলের সভাপতি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিচ্ছি।” সংবাদমাধ্যমের তরফে গহলৌতকে প্রশ্ন করা হয়, তিনিই কি রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে কাজ চালিয়ে যাবেন? প্রশ্নের প্রেক্ষিতে তাঁর সংযমী উত্তর, “সেটা আমি ঠিক করার কেউ নই। কংগ্রেসের সভাপতি সনিয়া গান্ধীই সেটা ঠিক করবেন।”

তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে বৃহস্পতিবারই সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক করার কথা রাজস্থানে তাঁর দলীয় ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’ সচিন পাইলটের। প্রসঙ্গত, কিছু দিন আগেও ধরে নেওয়া হয়েছিল গহলৌতই কংগ্রেসের পরবর্তী সভাপতি হতে চলেছেন। কিন্তু সে ক্ষেত্রে কংগ্রেসের ‘এক পদ, এক নীতি’ অনুসারে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী পদ ছাড়তে হত গহলৌতকে। কিন্তু কংগ্রেসের একাংশের দাবি, গহলৌত একাধিক পদে থেকে যাওয়ার পক্ষেই সওয়াল করেন। গহলৌতের বিরুদ্ধে অভিযোগ, রাজ্য রাজনীতিতে তাঁর ‘বিরোধী’ পাইলটের মুখ্যমন্ত্রী হওয়া আটকাতে নিজের অনুগত বিধায়কদের প্ররোচিত করেছেন তিনি। সে সময় শোনা গিয়েছিল, গহলৌতের ‘অবাধ্যতায়’ বিরক্ত কংগ্রেস হাইকম্যান্ড গহলৌতকে সভাপতি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর নির্দেশ দেবে। বৃহস্পতিবার সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে সভাপতি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা জানিয়ে দিলেন গহলৌত নিজেই।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.