×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

এই মাস্ক থাকলে আর লুকিয়ে বিয়েবাড়ি খাওয়া যাবে না

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি২৯ নভেম্বর ২০২০ ১৬:১৫
শাটারস্টক থেকে নেওয়া প্রতীকী চিত্র।

শাটারস্টক থেকে নেওয়া প্রতীকী চিত্র।

বিনা নিমন্ত্রণে বিয়েবাড়িতে ভোজ খেতে পৌঁছে যাওয়ার ঘটনা মাঝে মধ্যেই দেখা যায় সিনেমার পর্দায়। বাস্তবেও যে এমন হয় না, তা নয়! আর এই করোনা আবহে যেখানে সবার মুখেই মাস্ক, সেখানে তো কেউ কেউ নিশ্চয়ই ভেবে রেখেছেন গিফট না দিয়েই বিনা নিমন্ত্রণে দু-একটা বিয়েবাড়ি খেয়ে আসবেন। মাস্কের আড়ালে ‘আমি বরের বন্ধু’ বলে কেউ যদি খেতে বসে পড়েন তবে ধরাও মুস্কিল। তবে ভাবুন তো, যদি মাস্ক দেখেই চেনা যায় তিনি কোন পক্ষের নিমন্ত্রিত তবে কেমন হত? ভাবছেন এটা আবার সম্ভব নাকি? হ্যাঁ, এমনই এক মাস্কের ছবি পোস্ট করেছেন শিল্পপতি আনন্দ মহিন্দ্রা।

আনন্দ তাঁর ভেরিফায়েড টুইটার হ্যান্ডলে ২৮ নভেম্বর ছবিটি পোস্ট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, হলুদ এবং গোলাপি রঙের একগুচ্ছ মাস্ক। হলুদ মাস্কে ইংরেজি হরফে হিন্দিতে লেখা ‘বরপক্ষ’ আর গোলাপি মাস্কে লেখা ‘কনেপক্ষ’। ফলে বুঝতেই পারছেন, আগে থেকেই হয়তো বরপক্ষ আর কনেপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হবে এই মাস্ক। ফলে এই মাস্ক যেন গোট পাস হিসাবেই ব্যবহার হবে। তাই মাস্কের আড়ালে মুখ লুকিয়ে বিনা নিমন্ত্রণে ঢুকে পড়া সহজ হবে না।

এই মাস্ক কোথায় কার বিয়ের জন্য তৈরি হয়েছে, তা অবশ্য উল্লেখ করেননি আনন্দ। তবে এমন একটি আইডিয়া সম্বলিত ছবি ভাইরাল হতে সময় নেয়নি। আর নেটাগরিকরাও এমন মজার ছবি নিয়ে রসিকতায় মেতে উঠেছেন। এক জন তো আবার হিন্দি সিনেমা ‘৩ ইডিয়টস’-এ র‍্যাঞ্চোদের বিনা নেমন্তন্নে খেতে যাওয়ার ছবিটিও পোস্ট করে দিয়েছেন।

Advertisement

 


Advertisement