×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

করোনার ওষুধ আবিষ্কারের দাবি, সুপ্রিম কোর্টে জরিমানা আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২১ অগস্ট ২০২০ ১৪:২১
আয়ুর্বেদ চিকিৎসকের আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টে।

আয়ুর্বেদ চিকিৎসকের আবেদন খারিজ সুপ্রিম কোর্টে।

করোনার টিকা আবিষ্কারে মাথার ঘাম পায়ে ফেলছে গবেষককুল। ঠিক এই সময়েই করোনার ওষুধ আবিষ্কারের দাবি করে বসেছেন এক আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক। শুধু তাই নয় ওই চিকিৎসা পদ্ধতি যাতে দেশ জুড়ে ব্যবহার করা হয় সেই আবেদন জানিয়ে সটান সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিনি। শীর্ষ আদালত সেই আবেদন পত্রপাঠ খারিজ করে দিয়েছে। সেই সঙ্গে ওই আয়ুর্বেদ চিকিৎসককে জরিমানাও করেছে।

সারা পৃথিবী জুড়ে রোজই বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুও। অতিমারির কোপে পড়ে কাঁপছে ভারতও। শুক্রবারই সারা দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৯ লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৫৪ হাজারেরও বেশি মানুষের। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে এই মুহূর্তে সারা বিশ্বে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। ঠিক এই পরিস্থিতিতেই সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা করে বসেন হরিয়ানার বাসিন্দা ওমপ্রকাশ বেদ জ্ঞানতারা নামে এক আয়ুর্বেদ চিকিৎসক। ওমপ্রকাশের দাবি, তিনি এই ভয়াবহ অতিমারির মোক্ষম ওষুধ আবিষ্কার করে ফেলেছেন। তাঁদে সেই ওষুধ ব্যবহারের সুয়োগ দেওয়া হোক। সেই মামলা গ্রহণ করা হবে কি না তা নিয়ে শুক্রবার সিদ্ধান্ত নেয় সুপ্রিম কোর্ট। ওমপ্রকাশের এই আবেদন শোনা মাত্র তা খারিজ করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত।

ওমপ্রকাশ পেশায় এক জন আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক। আয়ুর্বেদ মেডিসিন অ্যান্ড সার্জারিতে ব্যাচেলর ডিগ্রি রয়েছে তাঁর। তাঁর তৈরি করা ওষুধ যাতে কেন্দ্রীয় সরকার এবং স্বাস্থ্য বিভাগ ব্যবহার করে সেই আবেদনও সুপ্রিম কোর্টে করেছিলেন তিনি। এমন উদ্ভট দাবি শুনে ওমপ্রকাশকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে শীর্ষ আদালত।

Advertisement
Advertisement