Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Narendra Modi

Narendra Modi: বক্তৃতায় ‘বেটি বচাও...’ স্লোগান বলতে গিয়ে মুখ ফস্কে বিড়ম্বনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উচ্চারণ বিভ্রাটে ‘বেটি পড়াও’ শুনে মনে হচ্ছে ‘বেটি পটাও’। ব্যাস, তাতেই মিমের বন্যা। কটাক্ষের ছড়াছড়ি।

 বেটি বচাও, বেটি ‘পটাও’! মুখ ফস্কে এ  কী বলে বসলেন মোদী

বেটি বচাও, বেটি ‘পটাও’! মুখ ফস্কে এ কী বলে বসলেন মোদী গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

নিজস্ব প্রতিবেদন
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২১ জানুয়ারি ২০২২ ১২:৩১
Share: Save:

স্রেফ উচ্চারণ বিভ্রাট। আর তাতেই কটাক্ষের বন্যা! প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উচ্চারণ বিভ্রাটে ‘বেটি পড়াও’ শুনে মনে হচ্ছে ‘বেটি পটাও’। ব্যাস, তাতেই মিমের বন্যা। কটাক্ষের ছড়াছড়ি। টুইটারে যা রীতিমতো ‘ট্রেন্ডিং’ও থেকেছে।

দিন কয়েক আগেই আন্তর্জাতিক মঞ্চে বক্তৃতা দিতে গিয়ে টেলিপ্রম্পটার বিভ্রান্তিতে নাজেহাল হয়েছিলেন মোদী। এ বারে তাঁরই স্বপ্নের প্রকল্প ‘বেটি বচাও, বেটি পড়াও’ হয়ে গেল ‘বেটি পটাও’!

বৃহস্পতিবার ব্রহ্ম কুমারী আয়োজিত ‘আজাদি কি অমৃত মহোৎসব সে স্বর্ণিম ভারত কি ওউর’ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিচ্ছিলেন মোদী। সেখানে ‘বেটি পড়াও’ বলতে গিয়ে মুখ ফস্কে যা বলেছেন তা শুনে অনেকের মনে হয়েছে ভুল করে মোদী ‘বেটি পটাও’ বলেছেন! তার পরেই ওই মন্তব্য ঘিরে শুরু হয় কটাক্ষ, মিমের বন্যা।

এই মিমগুলির মধ্যে বেশ কয়েকটিতে তাঁর টেলিপ্রম্পটার দেখে বক্তৃতা দেওয়াকেও কটাক্ষ করা হয়। এক জন লেখেন, ‘বেটি বচাও, বেটি পটাও এখন বিজেপি-র স্লোগান। ওই দলটির থেকে এর চেয়ে বেশি কিছু আশা করি না।’ আর এক জন ওই বক্তব্যের সঙ্গে রাহুল গাঁধীর একটি ছবি জুড়ে লিখেছেন, ‘আমার জন্য পাত্রী দেখুন।’
আরও একজন তুলেছেন বাংলায় নির্বাচনে মোদীর প্রচারে ‘দিদি, ও দিদি’ প্রসঙ্গ। লিখেছেন, ‘যিনি মঞ্চ থেকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে ওই ভাবে টিটকারি মারতেন, তিনি তাঁর দলের অন্যদের এই পরামর্শই দেবেন।’

তবে, ওই মুখ ফস্কানো ছাড়া বাকি অনুষ্ঠান অবশ্য সাবলীল ভাবেই সামলেছেন মোদী।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE